প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভাণ্ডারিয়ার মেধাবী শিক্ষার্থী আইরিনের লেখাপড়ার দায়িত্ব নিলেন পিরোজপুর পুলিশ সুপার

এস,এম রিয়াজ: [২] উপজেলার হতদরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থী আইরিনের লেখাপড়ার সকল দায়িত্ব নিলেন পিরোজপুর পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান। আইরিন উপজেলার ভিটাবাড়িয়া ইউনিয়নের গুচ্ছ গ্রামের বাসিন্দা মৎস্যজীবি কালাম ভূইয়ার মেয়ে।

[৩] অর্থাভাবে মেয়েটির যখন উচ্চ শিক্ষা অনিশ্চিত সে কথা শুনে তার পাশে দাড়ানোর ঘোষনা দেন পিরোজপুর জেলা পুলিশ সুপার। শনিবার তার কার্যালয়ে মেয়েটিকে ডেকে নিয়ে তার হাতে নগদ ১০ হাজার টাকার তুলে দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হেডকোয়ার্টার কাজী শাহনেওয়াজ, মহিলা কাবাডি দলের কোচ মোঃ শফিকুল ইসলাম আজাদ।

[৪] ভিটাবাড়িয়া নুরজাহান হাবীব আদর্শ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সঞ্জিব কুমার মজুমদার বলেন, হতদরিদ্র আইরিন এবারের এস,এসসি পরীক্ষায় কোন প্রকার প্রাইভেট পড়া ছাড়াই নিজ চেষ্টায় ভিটাবাড়িয়া নুরজাহান হাবীব আদর্শ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে বানিজ্যি বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়েছে। আইরিন পড়ালেখার পাশাপাশি সাইকেল চালানো, সাঁতার কাটা, ঘুড়ি উড়ানো, ফুটবল,ক্রীকেট এবং কাবাডি খোলায় পারদর্শী। তাকে পিরোজপুর জেলা পুলিশের মহিলা কাবাডি দলের ক্যাপ্টেন নির্বাচিত করা হয়েছে।

[৫] তার পাশে দাড়ানোর জন্য জেলা পুলিশ সুপারকে ধন্যবাদ জানিয়ে শিক্ষার্থী আইরিন আক্তার বলেন, তার স্বপ্ন বড় হয়ে সে একজন বড় ক্রিকেটার হবেন। বর্তমানে নতুন কলেজে ভর্তি হয়ে উচ্চ শিক্ষা লাভ করতে চান।
সম্পাদনা : জেরিন আহমেদ

সর্বাধিক পঠিত