প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হোটেলের ঘরে মহিলা নিয়ে ‘ফূর্তি’, যুবভারতী মাতানো ফুটবলারকে ছেঁটে ফেলল ইংল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক: ফিল ফোডেন কলকাতার ফুটবলপ্রেমীদের মনে থাকার কথা নামটা। কারণ, মাত্র বছর তিনেক আগেই অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপে যুবভারতী মাতিয়ে গিয়েছেন ইংল্যান্ডের এই তারকা। বয়স মাত্র ২০ বছর। এখন খেলেন ম্যাঞ্চেস্টার সিটির হয়ে। উজ্বল ভবিষ্যৎ। কিন্তু এ হেন তারকা এবার শিরোনামে এলেন বিতর্কিত কারণে। টিম ম্যানেজমেন্টের অনুমতি না নিয়ে হোটেলের ঘরে দুই মহিলাকে প্রবেশ করানোর অপরাধে ৪ ম্যাচের জন্য তাঁকে সাসপেন্ড করল ইংল্যান্ড ফুটবল দল।

ফোডেন একা নন, আরও এক ইংল্যান্ড তারকা মেসন গ্রিনউডও একই দোষে দোষী। ফোডেনের মতো গ্রিনউডও প্রতিভাবান ফুটবলার। তিনি খেলেন ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডে। আসলে জাতীয় দলের হয়ে আইসল্যান্ডে খেলতে গিয়ে ২০ বছরের ফোডেন এবং ১৮ বছরের গ্রিনউড একসঙ্গেই দুই মহিলাকে লুকিয়ে টিম হোটেলে ঢোকান। ২০ বছরের এক মডেল নাদিয়া লিন্ডাল এবং তাঁর বোন ফোডেন এবং গ্রিনউডদের ঘরে যান। হোটেলের সিসিটিভি ক্যামেরায় সেই ছবি ধরা পড়তেই ফ্যাসাদে পড়ে যান দুই তারকা। একে তো ওই দুই মহিলা অপরিচিত। তার উপরে আবার করোনা বিধিভঙ্গ। জোড়া অপরাধে তাঁদের চার ম্যাচ করে নির্বাসনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফুটবল অ্যাসসিয়েশন। যদিও সরকারিভাবে শাস্তির মেয়াদ ১ ম্যাচ। তবে, সূত্রের খবর, আগামী মাসে ইংল্যান্ডের যে গোটা তিনেক ম্যাচ খেলার কথা, তাতেও ওই তিন তারকাকে ডাকা হবে না। সেই সঙ্গে আইসল্যান্ডের প্রশাসনকে মোটা অঙ্কের জরিমানাও দিতে হবে।

আসলে ইংল্যান্ডের মতো দেশে ফুটবলাররা হোটেলে বান্ধবীদের নিয়ে যাবেন, সেটা নতুন কিছু নয়। কিন্তু ফোডেনরা যাদের নিয়ে গিয়েছিলেন তাঁদের সম্পর্কে টিম ম্যানেজমেন্টের কাছে কোনও তথ্য ছিল না। তার উপর করোনা পরিস্থিতিতে ফুটবলারদের ঘরে সতীর্থদের ঢোকা পর্যন্ত নিষিদ্ধ। কিন্তু এই দুই তারকা দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো দু’জন অপরিচিত মহিলাকে নিয়ে চলে আসেন। ফলে কড়া শাস্তি পেতে হল তাঁদের। শুধু এফএ বা আইসল্যান্ড প্রশাসন নয়, দুই তারকার দুই ক্লাবের তরফেও এই ঘটনার কড়া নিন্দা করা হয়েছে। চাপে পড়ে ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছেন ওই দুজন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত