প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ওয়েজ অর্নার ডেভলাপমেন্ট বন্ড ক্রয়ে অস্পষ্ট এক নীতিমালা প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক

বিশ্বজিৎ দত্ত: [২] কর্মকর্তারা বলছেন, স্বচ্ছ করার জন্য নীতিমালা করা হলেও এখন মনে হচ্ছে অস্পষ্টতা রয়েছে।

[৩] প্রবাসীদের অর্থপ্রেরণকে উৎসাহিত করার জন্য ওয়েজ অর্নার ডেভলাপমেন্ট বন্ড চালু করা হয়। এই বন্ডে সর্বোচ্চ ১২ শতাংশ সুদ প্রদান করা হয়। গতকাল কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, পেনশনের টাকা দিয়ে প্রবাসীরা এই বন্ড ক্রয় করতে পারবেন না। তাছাড়া মৃত্যুরপর প্রবাসীর সার্ভিস বেনিফিট দিয়েও এই বন্ড ক্রয় করা যাবে না। বিদেশি জাহাজ বা এয়ারলাইন্সে চাকুরিরতরাও এই বন্ড ক্রয় করতে পারবেন না।

[৪] কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক খুরশীদ আলম জানান, বন্ডের নীতিমালা প্রণয়ন করে আভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ। আমরা নোটিশ দিয়ে ব্যাংকগুলোকে এ বিষয়ে জানাই। কিন্তু এই নীতিমালায় কিছু অস্পষ্টতা রয়েছে বলে তিনি স্বীকার করেণ। যেমন, প্রবাসীর টাকা এটি পেনশনের না অন্য আয়ের এটি সনাক্ত করা হবে কিভাবে এটা স্পষ্ট নয়। তাছাড়া বিদেশের অন্যচাকুরিজীবীরা বন্ড কিনতে পারলেও মেরিনার ও পাইলটরা কেন কিনতে পারবেনা এসব বিষয়।

[৫] অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সচিব আবু হেনা রহমাতুল মুনিম কথা বলতে চাননি। যুগ্মসচিব নূরুজ্জামান বলেন, বন্ডের এই নীতিমালায় অস্পষ্টতা রয়েছে। ব্যাংকগুলো থেকে অভিযোগ এলে সংশোধন করা হতে পারে।

[৬] প্রবাসীদের মধ্যে জনপ্রিয় এই বন্ডটি২০২০-২১ সালে বিক্রি হয়েছে ১৩৪১ কোটি টাকার। এরআগে বিক্রি হয়েছে ১৩৬৭ কোটি টাকার।

সর্বাধিক পঠিত