প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতে কোভিড মন্দায় বাজারে চাহিদার ব্যাপক হ্রাস, জানাল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক

রাশিদ রিয়াজ : ভারতের রিজার্ভ ব্যাঙ্কের বার্ষিক রিপোর্ট বলছে জুনে শেষ হওয়া ত্রৈমাসিকের মূল্যায়নে দেখা যাচ্ছে চাহিদার ওপরে কোভিড মহামারীর প্রভাব সুস্পষ্ট। বাজারে আগের চাহিদায় ফিরে অনেক সময় লাগবে। ব্যক্তিগত চাহিদা থেকে শুরু করে পরিবহণ, হোটেল শিল্প, বিনোদন ও সাংস্কৃতিক খাত ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সবচেয়ে বেশি। এশিয়ায় তৃতীয় বৃহত্তম অর্থনীতি হিসেবে ভারতে জিডিপির ৬০ শতাংশ আসে ভোগ্যপণ্যের বাজার থেকে। টাইমস অব ইন্ডিয়া

কোভিড মন্দা মোকাবেলায় ভারতের মোদী সরকার ২১ হাজার কোটি রুপির প্যাকেজ ঘোষণা করে যার বেশিরভাগ অর্থ ব্যয় হচ্ছে ঋণগ্রহীতাদের সহায়তায়। বাজারে চাহিদা বাড়ানোর জন্য সহায়তা করা হয়েছে কম। যে কারণে যোগান দেয়া সম্ভব হয়নি।
ব্লুমবার্গের অর্থনীতিবিদরা মনে করছেন, আগামীতে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের বাজেট ঘাটতি হবে জিডিপি-র ৭.২ শতাংশ।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন ঘাটতি যে পর্যায়ে বেঁধে রাখার লক্ষ্যমাত্রা স্থির করেছিলেন, বাস্তবে ঘাটতি তার চেয়ে অনেক বাড়বে। বুধবারই ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী বলেন, মিডিয়া যদি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু থেকে মানুষের নজর ঘুরিয়ে দিতে চায়, তার ফল গরিবের পক্ষে ভাল হবে না। মিডিয়া অর্থনৈতিক সংকটের কথা না লেখে, তা হলে সেই সংকট শূন্যে মিলিয়ে যাবে না। তাই রিজার্ভ ব্যাঙ্ক এখন সংকটের কথা স্বীকার করছে। আসলে কোভিড সংকট যথাযথভাবে সামলাতে পারেনি মোদী সরকার। তার ফলেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দেশের অর্থনীতি।

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানায়, সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অর্থনীতি সংকুচিত হবে কোভিড দীর্ঘস্থায়ী, বর্ষায় স্বাভাবিক বৃষ্টি না হওয়ায় এবং আন্তর্জাতিক অর্থনীতির অস্থিতিশীলতার কারণে। বিশে^র ২০০ দেশে কোভিড ছড়িয়ে পড়েছে যার অংশ হিসেবে বিশ্ব অর্থনীতির সাথে ভারতে বিকাশের হার কমবে। ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের রিপোর্টে বলা হয়েছে, ২০১৯-২০ সালে ব্যাঙ্কনোটের সরবরাহ ছিল তার আগের বছরের তুলনায় ২৩.৩ শতাংশ কম। লকডাউনে এর সরবরাহ আরো হ্রাস পায়।

এদিকে ভারতে জুন মাসে বৃদ্ধি পেয়েছে গ্রাহক মুদ্রাস্ফীতি সূচক। মার্চে এই সূচক ছিল ৫.৮৪ শতাংশ যা এখন দাঁড়িয়েছে ৬.০৯ শতাংশ। জুন মাসের পাইকারি মুদ্রাস্ফীতি ৫.৩০ শতাংশের পূর্বাভাস দেয়া হয়। একই সময়ে খাদ্য সূচক ৯.২০ থেকে ৭.৮৭ শতংশে নেমেছে।

সর্বাধিক পঠিত