প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিসিসিআই’র সাবেক সভাপতি শ্রীনিবাসন ক্ষমতার জোর দেখিয়েছিলেন

স্পোর্টস ডেস্ক : [২] ২০১১ সালে মহেন্দ্র সিং ধোনির অধীনে বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত। এপরই তারা অস্ট্রেলিয়া সফরে গিয়ে টেস্টে হোয়াইটওয়াশ হয়ে ফেরে। এমন পারফরম্যান্সের পর তাঁকে অধিনায়ক পদ থেকে সরিয়ে দেয়ার দাবি তোলেন এক নির্বাচক। সে সময় ধোনির হয়ে লড়াই করেছিলেন তৎকালীন বিসিসিআই সভাপতি এন শ্রীনিবাসন।

[৩] ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে শ্রীনিবাসন এ সম্পর্কে বলতে গিয়ে জানান, ক্ষমতার জোরেই সেবার ধোনির অধিনায়কত্ব রক্ষা করেছিলেন তিনি। শ্রীনিবাসনের হাতে তাই ধোনির নেতৃত্ব বাঁচানোর সুযোগ ছিল। তাই তিনি তার ক্ষমতার সর্বোচ্চটা ব্যবহার করেছিলেন।

[৪] শ্রীনিবাসন বলেন, ‘সময়টা ২০১১ সাল। ভারত কেবল বিশ্বকাপ জিতেছে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া সফরে টেস্টে আমরা ভালো করতে পারিনি। একজন নির্বাচক ধোনিকে ওয়ানডে নেতৃত্ব থেকেও সরিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব তুললো। আমার প্রশ্ন ছিল, ওয়ানডে নেতৃত্ব থেকে তাকে সরানো হবে কোন যুক্তিতে?

[৫] দিনটা ছুটির দিন ছিল। আমি গলফ খেলছিলাম। ফিরে এলে বিসিসিআই সেক্রেটারি সঞ্জয় বলেন, স্যার নির্বাচকরা ধোনিকে অধিনায়ক হিসেবে চায় না। তারা ধোনিকে দলে শুধু একজন ক্রিকেটার হিসেবে খেলাতে চায়। আমি শুধু জানিয়ে দেই যে, ধোনির হাতেই থাকবে নেতৃত্ব। বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হিসেবে আমি আমার সমস্ত ক্ষমতা ব্যবহার করি তাকে নেতৃত্বে রাখার জন্য।

[৬] ধোনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অবসর নিলেও আইপিএলে খেলা চালিয়ে যাবেন। শ্রীনিবাসন জানিয়েছেন, ধোনি খেলে যেতে চাইলে চেন্নাইতেই থাকতে পারবেন তিনি। দলটির মালিক বলেন, ধোনি যতদিন চায়, চেন্নাইয়ের হয়ে খেলে যেতে পারে। চেন্নাইয়ে ধোনির সাফল্য পাওয়ার কারণ হলো, সে কখনো ম্যাচ ছাড়া কোন কিছু নিয়ে চিন্তা করেনি। এখনও দল একইভাবে এগোবো।- ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস/ ক্রিকফ্রেঞ্জি

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত