প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সন্দ্বীপে ১৯৭, সীতাকুণ্ডে ১৯৬ মিলিমিটার বর্ষণ

ডেস্ক রিপোর্ট : টানা তিনদিন ধরে চট্টগ্রাম অঞ্চলে অতিভারী বর্ষণ হচ্ছে। সোমবার (১৭ আগস্ট) দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে এ অঞ্চলে।

এর মধ্যে সন্দ্বীপে ১৯৭ মিলিমিটার এবং সীতাকুণ্ডে ১৯৬ মিলিমিটার বর্ষণ হয়েছে। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, এমন বর্ষণ কয়েকদিন চললে পাহাড় ধসের শঙ্কা দেখা দেবে।

আবহাওয়াবিদ মো. হাফিজুর রহমান জানিয়েছেন, উত্তর বঙ্গোপসাগরে সক্রিয় মৌসুমী বায়ু এবং বায়ুচাপ পার্থক্যের আধিক্যের কারণে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্র বন্দরগুলোর ওপর দিয়ে ঝড়াে হাওয়া বয়ে যেতে পারে। বৃষ্টিপাতও বেশি হচ্ছে।

এ অবস্থায় চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মােংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরগুলোকে নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। তবে ঝড়ো হাওয়া বয়ে গেলেও গত কয়েকদিনের মতো ১ থেকে ২ ফুট অধিক উচ্চতার জোয়ারের পানিতে উপকূলীয় এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা নেই।

এদিকে মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে রংপুর, রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ফরিদপুর, ঢাকা, যশাের, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নােয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম,কক্সবাজার ও সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিমি বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়াে হাওয়া বয়ে যেতে পারে। সেইসঙ্গে বৃষ্টি/বজ্রসহ হতে পারে। তাই এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) সন্ধ্যা পর্যন্ত দেওয়া অন্য এক পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, ঝাড়খন্ড এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থারত লঘুচাপটি মৌসুমী বায়ুর অক্ষের সঙ্গে মিলিত হয়েছে। মৌসুমী বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ রাজস্থান, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গেপসাগর এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে প্রবল অবস্থায় বিরাজমান।

মৌসুমী বায়ুর বর্তমান অবস্থানের কারণে ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।বাংলানিউজ

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত