প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সড়ক দুর্ঘটনায় পর্বতারোহী রত্নার মৃত্যু, ৭ দিনেও হদিস নেই মাইক্রোবাসের

ডেস্ক রিপোর্ট : রাজধানীর সংসদ ভবন এলাকার লেক রোডে সাইক্লিং করার সময় গাড়ির ধাক্কায় পর্বতারোহী রত্নার মৃত্যুর সাত দিনেও মাইক্রোবাসের সন্ধান পায়নি পুলিশ। জড়িত চালক সম্পর্কেও অন্ধকারে পুলিশ কর্মকর্তারা। এমনকি মাইক্রোর নম্বর, মালিকের নাম কিংবা চালকের চেহারা কিছুই স্পষ্ট নয় পুলিশের কাছে।

গত ৭ আগস্ট সংসদ ভবন এলাকার চন্দ্রিমা উদ্যান সংলগ্ন লেক রোডে সাইক্লিং করার সময় গাড়ির ধাক্কায় মৃত্যু হয় পর্বতারোহী রেশমা নাহার রত্নার।

শেরেবাংলা থানার ওসি জানে আলম মুন্সী জানিয়েছেন, আমরা বেশ কয়েকটি সিসিটিভি ফুটেজ যাচাই-বাছাই করে একটি গাড়িকে শনাক্ত করেছি। তবে কোনো ক্যামেরায়ই এর প্লেটের নম্বরটি স্পষ্টভাবে দেখা যায়নি। আমরা গাড়িটির নম্বর শনাক্ত করার জন্য বিআরটিএতে পাঠিয়েছি। পাশাপাশি সিআইডির ফরেনসিক টিমকেও দেওয়া হয়েছে। গাড়ি কিংবা চালক কাউকেই শনাক্ত করতে পারিনি। চেষ্টা চলছে। আশা করি অল্প সময়ে গাড়িটি পাকড়াও করতে পারবো।

ডিএমপির এক কর্মকর্তা বলেন, রত্নাকে চাপা দিয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় মাইক্রোবাসটি। দুর্ঘটনাস্থলের আশপাশে ছিল না কোনো ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা। এখন এ ঘটনার তদন্ত চলছে প্রত্যক্ষদর্শী ও আশপাশের এলাকার ফুটেজ ধরে। কালো মাইক্রোবাসটি টয়োটা হাইএস ব্র্যান্ডের। পুরো গাড়িটি কালো হলেও এর বাম দিকের দরজাটি সাদা রঙের। নম্বর প্লেটটি স্পষ্টভাবে না দেখা যাওয়ায় আপাতত এতটুকু তথ্য নিয়েই এগোতে হচ্ছে পুলিশকে।

শেরেবাংলা থানার এসআই মোবারক হোসেন জানান, পুলিশের একাধিক টিম গাড়িটি উদ্ধারে কাজ করছে। ঢাকার ছয়টি পয়েন্টে খোঁজ নেওয়া হয়েছে। তবে গাড়িটি পাওয়া যায়নি। আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করছি। আব্দুল্লাহপুর, গাবতলী ও যাত্রাবাড়ীসহ ঢাকা থেকে বের হওয়ার প্রতিটি পথে জানানো হয়েছে গাড়িটি সম্পর্কে। সেসব সড়কের সিটিটিভি ক্যামেরার ফুটেজও সংগ্রহ করা হচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে, গাড়িটি এখনো ঢাকায় আছে।

মামলার বাদী রত্নার ভগ্নিপতি মনিরুজ্জামান মনির বলেন, পুলিশের সাথে যতবারই কথা বলি তারা আশ্বাস দেন, তারা চেষ্টা করছেন। তবে সাত দিনেও ঘটনাস্থলের দুর্ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ উদ্ধার করতে পারেনি- এটা দুঃখজনক।

রত্না পেশায় একজন শিক্ষক ছিলেন। ধানমন্ডির আইয়ুব আলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করতেন। ইডেন কলেজে লেখাপড়া করা রত্না ভারতের নেহেরু ইনস্টিটিউট অব মাউন্টেনিয়ারিংয়ে পর্বতারোহণের প্রশিক্ষণ নেন। কেনিয়া পর্বতের লেনানা চূড়া জয়ের পর ২০১৯ সালের আগস্টে ভারতের লাদাখে ছয় হাজার ১৫৩ মিটার উচ্চতার স্টক কাঙরি পর্বত চূড়া এবং এক সপ্তাহের মধ্যে ছয় হাজার ২৫০ মিটার উচ্চতার কাং ইয়াতসে-২ পর্বত চূড়ায় সামিট করেন।দেশ রূপান্তর

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত