প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] আমতলীতে সংঘর্ষে কৃষক নিহত, আহত-৫

মোঃ জয়নুল, আমতলী প্রতিনিধি : [২] বরগুনার আমতলীতে জমির সীমানা নির্মাণকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে সুলতান গাজী (৫০) নামের এক কৃষক নিহত ও তার দুই ছেলেসহ ৫ আহত হয়েছে। গুরুতর আহত চুন্নু গাজী ও পনু গাজীকে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

[৩] বৃহস্পতিবার (৭ আগস্ট) সন্ধ্যায় বরগুনার আমতলী উপজেলার ঘোপখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

[৪] জানাগেছে, উপজেলার ঘোপখালী গ্রামের লতিফ গাজী ও আইউব মালের সাথে জমির সীমানা নির্মাণ নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। বৃহস্পতিবার সকালে এ নিয়ে লতিফ গাজীর ছেলে জাফর গাজী এবং আইউব মালের সঙ্গে কথা কাটা-কাটি হয়। এর জের ধরে ওইদিন সন্ধ্যায় উভয় পক্ষ লাঠিসোটা নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে দু’পক্ষের ছয়জন আহত হয়। গুরত্বর আহত সুলতান গাজী ও তার দুই ছেলে চুন্নু গাজী ও পনু গাজীকে স্বজনরা উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।

[৫] হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক সুমন খন্দকার আহত সুলতান গাজীকে মৃত্যু ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত চুন্নু গাজী ও পনু গাজীকে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অপর আহত মোশাররফ মাল, আইউব মাল ও শাহীন মালকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

[৬] নিহত সুলতান গাজীর ছেলে মামলার বাদী পনু গাজী বলেন, আমার বাবাকে আইউব মাল, মোশাররফ মাল, হাবিব মাল, তৈয়ব মাল, মকবুল মালসহ অন্য আসামীরা পিটিয়ে হত্যা করেছে। আমি এ ঘটনার বিচার দাবি করছি।

[৭] আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার সুমন খন্দকার বলেন, সুলতান গাজীকে হাসপাতালে আনার পূর্বেই মারা গেছেন।

[৮] আমতলী থানার ওসি মোঃ শাহ আলম হাওলাদার বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। সুলতান গাজীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে পাঠানো হয়েছে।

[৯] এ ঘটনার নিহতের ছেলে পনু গাজী বাদী হয়ে হত্যার অভিযোগ এনে আইউব মালকে প্রধান আসামি করে ১১ জনের নামে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনার পরপরই প্রধান আসামিসহ অপর আসামিরা এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। সম্পাদনা : হ্যাপি

সর্বাধিক পঠিত