প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পুষ্টি ও ঔষধি গুণে ভরপুর টক-মিষ্টি স্বাদের ফল লটকন

অনলাইন ডেস্ক : বাজারে উঠেছে বর্ষার অন্যতম ফল লটকন। টক-মিষ্টি এই ফলের স্বাদ অনেকেরই দারুন পছন্দ। তবে অনেকেই হয়তো জানেন না ফলটির রয়েছে দারুণ কিছু ঔষধি গুণ। দেশি ফল হিসেবে দেখতে ছোট হলেও অম্লমধুর এই ফল ভিটামিন বি২ সমৃদ্ধ একটি ফল।  আসুন জেনে নেয়া যাক এ অম্লমধুর ফলের গুনাগুন সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

পুষ্টি উপাদান: লটকনে আছে প্রচুর পরিমাণে নানা ধরনের ভিটামিন ‘বি’। এতে ভিটামিন বি-১ এবং ভিটামিন বি-২ আছে যথাক্রমে ১০ দশমিক ০৪ মিলিগ্রাম এবং ০.২০ মিলিগ্রাম,খনিজ পদার্থ-০.৯ গ্রাম, আমিষ -১.৪২ গ্রাম, চর্বি-০.৪৫ গ্রাম, লৌহ-০.৩ মিলি গ্রাম। পাকা লটকন খাদ্যমানের দিক দিয়ে খুবই সমৃদ্ধ। প্রতি ১০০ গ্রাম লটকনের কোয়ায় খাদ্যশক্তি থাকে প্রায় ৯২ কিলোক্যালরি।

অবাক বিষয় হলো এতে ক্যালরি আছে আমাদের জাতীয় ফল হিসেবে পরিচিত কাঁঠালের প্রায় দ্বিগুণ। লটকনে ভিটামিন ‘সি’ আছে প্রচুর। সিজনের সময় প্রতিদিন দুই-তিনটি লটকন খাওয়া মানেই আমাদের দৈনন্দিন ভিটামিন ‘সি’র চাহিদা পূরণ হওয়া। এছাড়া এ ফলে প্রচুর পরিমাণে রয়েছে চর্বি, আমিষ, লৌহ এবং খনিজ পদার্থ।

লটকনের উপকারিতা :

  • লটকন খেলে বমি বমি ভাব দূর হয় সহজেই। তৃষ্ণাও নিবারণ করে।
  • মানসিক চাপ কমায় এ ফল।
  • এর গাছের ছাল ও পাতা খেলে চর্মরোগ দূর হয়।
  • লটকন গাছের শুকনো গুঁড়ো পাতা ডায়রিয়া বেশ দ্রুত উপশম হয়।
  • এর গাছের পাতা ও মূল খেলে পেটের পীড়া ও পুরান জ্বর নিরাময় হয়।
  • এমনকি গনোরিয়া রোগের ওষুধ হিসেবেও ব্যবহৃত হয় এ ফলের বীজ।
  • এ ফল মুখের রুচি বাড়ায়।
  • তবে এ ফল বেশি মাত্রায় খাওয়া উচিত নয়। তাতে ক্ষুধামন্দা দেখা দিতে পারে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত