প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সেদিন মাটির তলায় বাংকারে লুকিয়েছিলেন ট্রাম্প

সালেহ্ বিপ্লব : [২] মিনোসোটায় ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদে ফুঁসছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। একই সঙ্গে উত্তাল হয়ে ওঠেছে ইউরোপের বিভিন্ন দেশ। এপি, সিএনএন

[৩] শুক্রবার রাতে ওয়াশিংটন ডিসিতে হোয়াইট হাউসের বাইরে কয়েক’শ বিক্ষোভকারী আফ্রিকান-আমেরিকান জর্জ ফ্লয়েড হত্যার বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ দেখায়। ৫ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে সিক্রেট সার্ভিস সদস্যদের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের হাতাহাতি, ধস্তাধ্বস্তি চলে।

[৪] বিক্ষোভাকারীরা সারিবদ্ধভাবে দাঁড়ানো কর্মকর্তাদের লক্ষ্য করে চিৎকার করে ও পানির বোতলসহ অন্যান্য বস্তু নিক্ষেপ করে এবং ধাতুর বেষ্টনি ভেঙে সামনে এগোনোর চেষ্টা করে।

[৫] এক পর্যায়ে তারা ধাতুর বেষ্টনি তুলে ফেলে এবং সিক্রেট সার্ভিসের কর্মকর্তাদের ধাক্কাধাক্কি শুরু করে। সিক্রেট সার্ভিসের কর্মকর্তারা পুরো সময় ধরে বারবার মানবপ্রাচীর গড়ে বিক্ষোভকারীদের ঠেকানোর চেষ্টা করে। বেশ কয়েকবার বিক্ষোভাকারীদের ধাক্কায় তারা পিছু হটেন যান। এসময় দুপক্ষেরই কয়েকজন আঘাতপ্রাপ্ত হন।
[৬] এক পর্যায়ে সিক্রেট সার্ভিসের কর্মকর্তারা বিক্ষোভকারীদের ওপর চড়াও হয়। পাল্টা ধাক্কা দিয়ে ও পিপার স্প্রে ব্যবহার করে তাদের পিছু হটানোর চেষ্টা করে।

[৭] পুরো সময় জুড়ে বিক্ষোভকারীরা নিহত ফ্লয়েডের পক্ষে শ্লোগান দেয় ও প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের প্রতি উষ্মা প্রকাশ করে চিৎকার করে।

[৮] রাত ১০টার দিকে হোয়াইট হাউসের সামনে শুরু হওয়া ওই বিক্ষোভ শনিবার ভোররাত সাড়ে ৩টা পর্যন্ত চলে। আর এই পুরো সময়টাই প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হোয়াইট হাউসের মাটির নিচে তৈরি বিশেষ বাংকারে আশ্রয় নিয়েছিলেন। নিরাপত্তায় নিয়োজিত সিক্রেট সার্ভিস কর্মকর্তারা এক প্রকার জোর করেই তাকে মাটির নিচে পাঠিয়ে দেন বলে জানা গেছে। বড়ো ধরনের সন্ত্রাসী হামলা থেকে রক্ষা পেতে বিশেষভাবে বানানো ওই বাংকারে প্রায় এক ঘণ্টা লুকিয়ে ছিলেন ট্রাম্প, হোয়াইট হাউস সূত্র এমনটাই জানিয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত