প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনা চিকিৎসায় বাংলাদেশে অনুমোদিত ওষুধের তালিকা

লাইজুল ইসলাম : [২] কোভিড-১৯ রোগে সংক্রমিত হলে নির্ধারিত কোনো ওষুধ সেবন করা যাবে না। রোগীর অবস্থা দেখে ওষুধ দেওয়া হয়ে থাকে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের একটি বিশেষজ্ঞ দল রয়েছে। এই বিশেষজ্ঞরা সারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ব্যবহৃত ওষুধ দেখে বাংলাদেশের জন্য কিছু ওষুধ নির্ধারণ করেছে।

[৩] এখন পর্যন্ত যেসব ওষুধ করোন চিকিৎসার জন্য ব্যবহৃত হচ্ছে সেগুলোর মধ্যে দুটি ভিটামিন রয়েছে। একটি জিংক রয়েছে। এছাড়া সিভিট ট্যাবলেটও ব্যবহার করছে চিকিৎসকরা।

[৪] স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডেপুটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডা. মোস্তফা মাহমুদ বলেন, এখন পর্যন্ত তিনটি ওষুধ আমরা ক্লিনিক্যাল ট্রায়েলে রেখেছি। রেমডেসিভির, এভিগান, ডক্সিসাইক্লিন এই ওষুধগুলো ব্যবহার হচ্ছে। তবে দুটি ওষুধ আমরা ব্যবহার করছি। একটি এজিক্টোমাইসিন ও হাইড্রোক্সিন ক্লোরোকুইন। এর পাশাপাশি আইভারমেকটিন অনেকে ব্যবহার করছে।

[৫] রোগতত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইন্সটিটিউটের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এএসএম আলোমগীর বলেন, এই পাঁচটি ওষুধের মধ্যে ডক্সিসাইক্লিন ও এজিক্টোমাইসিন এন্টিবায়োটিক। বাকি তিনটির মধ্যে দুটি রেমডেসিভি ও এভিগান এন্টিভাইরাল জাতীয় ওষুধ। হাইড্রোঅক্সিনক্লোরোকুইন প্যারাসাইট। এই ওষুধগুলো সারাবিশ্বে কোভিড-১৯ চিকিৎসায় ব্যবহৃত হচ্ছে।

[৬] এন্টি এলার্জি জাতীয় ওষুধ মোনাস। এটি সব সময় শ্বাসকষ্টের রোগিদের জন্য ব্যবহার করা হয়। যেহেতু করোনায় শ্বাসকষ্ট আছে। তাই এই ওষুধটি ব্যবহার করা হচ্ছে ।