প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কক্সবাজার মানবপাচারকারীদের মাধ্যমে সাগর পথে ৩ লাখ টাকায় মালয়েশিয়ায় আসছে রোহিঙ্গারা

শেখ সেকেন্দার আলী, মালয়েশিয়া প্রতিনিধি :[২] জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কক্সবাজারের মানবপাচারকারীদের মধ্যস্থতায় তিন লাখ টাকার বিনিময় নৌকায় করে মালয়েশিয়ায় আসছে রোহিঙ্গারা।

[৩] বাংলাদেশের কক্সবাজারে অবস্থিত মানব পাচার সিন্ডিকেটের হাতে ৪০ হাজার টাকা দিয়ে নৌকায় করে সাগর পথে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পাড়ি জমায় রোহিঙ্গারা মালয়েশিয়ায়। মালয়েশিয়ায় পৌঁছানোর পর ২ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা দেওয়ার পরে তাদের আত্মীয় স্বজনের কাছে হস্তান্তর করা হয় বলে জানালেন সম্প্রীতি গ্রেপ্তার হওয়া মালয়েশিয়ার লঙ্কাউইতে ২০২ জন রোহিঙ্গা শরণার্থী। শুক্রবার (১০ এপ্রিল) লাংকাউয়িতে এক সংবাদ সম্মেলনে

[৪] সেদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাতুক সেরি হামজাহ জয়নুদিন বলেন, আমাদের দেশে ইতিমধ্যে শরণার্থী পরিবারগুলির সফল প্রবেশের কারণে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আরো প্রবেশ বাড়ছে। তিনি আরো বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী জানা গেছে, তাদের পরিবারের অনেক সদস্য দীর্ঘদিন মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছে আবার অনেকের স্বামী এখানে অবস্থান করার কারণে তারা এদেশে প্রবেশ করছে। তিনি আরও যোগ করেন একজন শরণার্থীকে মালয়েশিয়ায় আসার জন্য প্রথমে কক্সবাজারের মানব পাচারকারীদের হাতে মালয় রিংগিত ২ হাজার (টাকা ৪০ হাজার) দিতে হয়। এর পর তাদের সফল যাত্রা শেষে মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করার পর তাদেরকে তার পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তরের সময় আরো মালয় রিংগিত ১৩ হাজার ( টাকা ২ লাখ ৬০ হাজার) দিতে হয়।যা সব মিলিয়ে মালয় রিংগিত ১৫ হাজার ( টাকা ৩ লাখ টাকা) দিতে হয়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হামজাহ আরও বলেন, কেডাহ, পেরলিসে গ্রেপ্তার হওয়া রোহিঙ্গাদের জিজ্ঞাসাবাদে আমরা জানতে পেরেছি যে, রোহিঙ্গা নৃগোষ্ঠী শরণার্থী বহনকারী বেশ কয়েকটি নৌকায় করে সাগর পথে প্রবেশ করতে পারে। যার কারণে ইতিমধ্যেই আমরা কেডিএন তার সংস্থার মাধ্যমে সাগরে নিয়ন্ত্রণ উন্নত করতে মাঠে নেমেছে। তিনি আরো যোগ করেন, এটি শেষ নয় রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রবেশ, আরো অনেক গ্রুপ প্রবেশ করতে পারে বলে আমরা গোয়েন্দা থেকে কে জানতে পেরেছি। আমরা এর থেকে উত্তরণের জন্য উপায় বের করার চেষ্টা করব এবং আন্তর্জাতিক সংস্থার সাথে কথা বলব। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন ইমিগ্রেশন প্রধান

[৫] উল্লেখ্য গত ৫ এপ্রিল স্থানীয় সময় সকাল নয়টায় মালয়েশিয়ার দ্বীপ রাষ্ট্র লাংকাউয়ি সাগরের ১.২ নটিক্যাল মাইল দূরে জালান পানতাই কোক নি তেলুুক নেবুুংয়ে নৌকা বোঝাই রোহিঙ্গা শরণার্থীদের উদ্ধার করে মালয়েশিয়ার মেরিটাইম এনফোর্সমেন্ট এজেন্সি (এপিএমএম)। উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গাদের জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, অবৈধ ভাবে সাগর পথে মালয়েশিয়ায় প্রবেশের অপেক্ষায় ছিলো তারা। এসময় তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত রোহিঙ্গাদের মধ্যে ছিলো ১৫২ জন পুরুষ, ৪৫ জন নারী ৫ জন শিশুসহ ২০২। গ্রেপ্তারকৃতদের কেডা ইমিগ্রেশন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত