প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্যবসায়ের জন্য ৫০০০ কোটি টাকার সহায়তা সম্পূর্ণ স্বচ্ছতার সঙ্গে মেটাতে হবে যাতে প্রকৃত শ্রমিকরা সুবিধাটি দেখতে পান

ববি হাজ্জাজ : আমাদের স্বাধীনতার ৪৯তম বছর উপলক্ষে সবাইকে মহান স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা। সঙ্কটের এমন একসময় যখন আমাদের সবার একত্রিত হওয়া ছাড়া আর কোনো উপায় নেই, ঠিক ১৯৭১ সালের মতো। ১৯৭১ সালে স্বাধীনতার অঙ্গীকার ছিলো গণতন্ত্র, আর গণতন্ত্র মানে সব নাগরিক সমান। কিন্তু আমাদের প্রচলিত সরকার ব্যবস্থায় সেটার প্রতিফলন নেই। করোনাভাইরাস এসে আবার দেখিয়ে দিলো আমরা সবাই সমান, কেউ ভিআইপি নই। ২৫ মার্চ জাতির জন্য দেওয়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভাষণটি ২৩ মিনিট দীর্ঘ ছিলো, তবে তাতে নীতিমালা বা নির্দেশনামূলক আলোচনা খুব অল্প ছিলো। এই মহামারীটির (কোভিড-১৯) বিরুদ্ধে লড়াই করতে সহায়তা করার জন্য আমরা নি¤œলিখিত নীতিমালা দাবি করছি : ১. বাড়িভাড়া, বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস, ইন্টারনেট ইত্যাদিসহ সব বিল এবং ছোট ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, ক্রেডিট কার্ড ইত্যাদি ঋণের কিস্তি সব ৩ মাসের স্থগিতাদেশ দাবি করছি এবং এই মহামারী হুমকি হ্রাস পেলে তারপর এই বিলগুলো কিস্তিতে চার্জ করা হবে এমন আইন প্রণয়নের দাবি জানাচ্ছি।
২. সব চিকিৎসক, নার্স এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য বিশেষ সুরক্ষা এবং বিশেষ স্বাস্থ্যসেবা দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবেÑ এই মহামারীটির বিরুদ্ধে আমাদের যুদ্ধে তারা হলেন নতুন মুক্তিযোদ্ধা।
৩. এই মহামারীটি রোধে সরকারের প্রচেষ্টা পর্যবেক্ষণে সহায়তা করার জন্য সংসদ সদস্যদের অবশ্যই তাদের নির্বাচনী এলাকায় উপস্থিত থাকতে হবে
৪. ব্যবসায়ের জন্য ৫০০০ কোটি টাকার সহায়তা সম্পূর্ণ স্বচ্ছতার সঙ্গে মেটাতে হবে যাতে প্রকৃত শ্রমিকরা সুবিধাটি দেখতে পান, এটা যেন বড় ব্যবসায়ীদের অ্যাকাউন্ট মোটাতাজাকরণ না করে।
৫. আমাদের স্বাস্থ্য খাতের জন্য দীর্ঘমেয়াদি নীতিমালা তৈরি করার জন্য একটি টাস্কফোর্স তৈরি করতে হবে এবং আমাদের জনসংখ্যার জন্য একটি শক্তিশালী সামাজিক সুরক্ষা জাল তৈরি করতে হবে।
৬. এই স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে বরখাস্ত করতে হবে এবং একটি মিডিয়া চ্যানেল খুলতে হবে যেখানে এই রোগ এবং সরকারি নীতিমালা সম্পর্কে আপডেটগুলো ২৪/৭ এ পাওয়া যাবে। জয় বাংলাদেশ। ফেসবুক থেকে

সর্বাধিক পঠিত