প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মাস্ক পরার যদি কোনো প্রয়োজনই না থাকে তাহলে হাসপাতালগুলাতে নার্স আর ডাক্তারেরা কেন হ্যাজম্যাট পরে থাকে? আমি ভাই মাস্কও পরবো, গ্লাভসও পরবো

মোস্তফা সরয়ার ফারুকী: মাস্ক পরার যদি কোনো প্রয়োজনই না থাকে তাহলে হাসপাতালগুলাতে নার্স আর ডাক্তারেরা কেন হ্যাজম্যাট পরে থাকে? আমি ভাই মাস্কও পরবো, গ্লাভসও পরবো। আমার আশপাশের সবাইকেও পরতে বলবো। চীনের এতো কাছে থাকার পরও হংকংয়ে এতো কম ইনফেকশনের অনেক কারণের একটা ছোট কারণ হংকংয়ের মানুষ প্রায় সারাবছরই মাস্ক পরে। হংকংয়ের অভিজ্ঞতা নিয়ে ওয়াশিংটন পোস্টের একটা লেখায় দেখলাম করোনা বিস্তার রোধে হংকংয়ের সাফল্যের কথা বলতে গিয়ে পাবলিক হেলথের একজন প্রফেসর যিনি আগে ডব্লিউএইচওতে কাজ করতেন, এটার উল্লেখ করেছেন। তবে তাদের সাফল্যের আসল জিনিসটাকে সবার আগে গুরুত্ব দেওয়া এবং সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া। তারা অ্যালার্ম রেইজ করেছে জানুয়ারির শুরুতে যখন এটা এতো ছড়ায়নি। কারণ সতর্ক হতে হবে ঝড় আসার আগে। এসে গেলে আর কিছু করার নে। উট পাখির মতো ‘জাস্ট অ্যানাদার ফ্লু’ বলে বাঁচার যে উপায় নেই সেটা ইতালি আর আমেরিকাকে দেখে বোঝা যাচ্ছে।

ইয়াহু নিউজে সম্প্রতি একটা লেখা ছাপা হছে ‘অ্যানাদার ফ্লু বলে হালকাভাবে নিও না’ শিরোনামে। ওইটা পড়লে বোঝা যাবে ইতালির সরকার এবং নাগরিকেরা এটাকে কতো হালকাভাবে নিয়েছিলো এবং তার মাশুল কতো খারাপভাবে দিতে হচ্ছে। আরেকটা কথা ভাই, গরমে এই ভাইরাস বাঁচে না এমন কোনো বৈজ্ঞানিক প্রমাণ এখনো হাজির হয়নি। গরমের দেশ সিঙ্গাপুর আর মধ্যপ্রাচ্যের দিকে তাকালে বোঝা যাবে। সুতরাং হালকাভাবে না নিয়ে একটু সিরিয়াসলি নেন। কারণ দেখা গেলো আপনি হালকাভাবে নিলেন, আপনার করোনা হয়েছে আপনি টের পেলেন না, আপনার ইমিউন সিস্টেম ভালো আপনি মরলেন না, কিন্তু আপনি ক্যারিয়ার হয়ে ঘুরছেন চারদিক, আপনার আশপাশের অন্যরাও হালকাভাবে নিয়ে ঘুরছে, ফলাফল হবে আমরা অজান্তেই এই ভাইরাসকে ছড়িয়ে দিবো সারা দুনিয়ায়। সাহসী হতে গিয়ে দয়া করে তাই ভাইরাসের পাখনা হবেন না। কখনো কখনো ভিরুতা সাহসের চেয়েও ফলদায়ক। জগতের সবাই সম্মিলিতভাবে এই আজাব পার করুক। ফেসবুক থেকে

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত