প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যেদিন থেকে আমি সব মুখোশধারীকে মুখের ওপর বলতে শিখেছি ‘তোর মুখোশ খোল’ সেদিন থেকে আমি মুক্ত

লী কুড়িগ্রাম: যেদিন থেকে আমি ‘চরিত্র’ শব্দটি শোনামাত্র ঠা ঠা শব্দে হাসতে হাসতে গড়িয়ে পড়ে সবাইকে চমকিয়ে দিতে পেরেছি, সেইদিন থেকে আমি মুক্ত। যেদিন থেকে আমি শরীরের দিকে তাকানো পুরুষকে সরাসরি বলতে পেরেছি, ‘চোখের দিকে তাকান/মুখের দিকে তাকান/শরীরের দিকে কি? সেদিন থেকে আমি মুক্ত। যেদিন থেকে আমি শরীরে হাত দিয়ে ভিড়ে হারিয়ে যেতে থাকা পুরুষকে পেছন থেকে চেপে ধরতে পারছি, থাপড়াইছি, লাত্থাইছি, সেদিন থেকে আমি মুক্ত। যেদিন থেকে আমি স্পষ্ট উচ্চারণে জগতের সব অশ্লীল পুরুষকে দ্বিগুণ অশ্লীল গালি ফেরত দিতে শিখেছি, সেদিন থেকে আমি মুক্ত। যেদিন থেকে আমি মাথা উঁচু, মেরুদ- সোজা আর স্পষ্ট চোখ-মুখ নিয়ে হেঁটে যেতে শিখেছি সেইদিন থেকে আমি মুক্ত।

যেদিন আমি মুদির দোকানের পাশে দাঁড়িয়ে টিজ করা পুরুষকে স্পষ্ট করে প্রশ্ন করতে পেরেছি সে কী চায়, সেদিন থেকে আমি মুক্ত। যেদিন থেকে আমি জগতের সব সুযোগসন্ধানী পুরুষকে পায়ের নিচে রেখে হা হা করে হাসতে শিখেছি সেদিন থেকে আমি মুক্ত। যেদিন থেকে আমি নিজের গায়ের রং, পেটের চর্বি, হাতের মোটা আঙুল, থ্যাবড়ানো পায়ের পাতা নিয়ে গর্বিত হতে শিখেছি সেদিন থেকে আমি মুক্ত। যেদিন থেকে আমি সব মুখোশধারীকে মুখের উপর বলতে শিখেছি ‘তোর মুখোশ খোল’ সেদিন থেকে আমি মুক্ত। জীবনে মুক্ত হওয়াটা জরুরি। মুক্ত নিজে নিজে হতে হয়। কেউ এসে খাঁচা খুলে কাউকে মুক্তি দেয় না। এটুকু মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি মুনমুন। এতো জলদি শুভরাত্রি দিচ্ছি না। আরও জেগে জেগে বই পড়বো। ফেসবুক থেকে

সর্বাধিক পঠিত