প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মোহনগঞ্জে নিজ দলের নেতাকর্মীদের তোপের মুখে মেয়র

মোহনগঞ্জ প্রতিনিধি: মোহনগঞ্জ পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি লতিফুর রহমার রতনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছে স্থানীয় ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

বুধবার সন্ধ্যায় এ বিক্ষোভ করা হয়। এ সময় তারা একটি মিছিল নিয়ে মেয়রকে উদ্দেশ্য করে ‘রাজাকারের রিরুদ্ধে ডাইরেক্ট একশন’, ‘৭১ এর রাজাকার নিপাত যাক’ এমন সব শ্লোগান দিয়ে পুরো শহর প্রদক্ষিণ করে। এতে শতশত নেতাকর্মী অংশ নেয়।

বিক্ষোভকারীরা জানায়, গত ১৭ ফেব্রুয়ারি মোহনগঞ্জ পৌরশহরের আলী উসমান শিশুপার্কে বাংলাদেশ বিমান পরিচালনা পরিষদের চেয়ারম্যান সাজ্জাদুল হাসানকে গণসংবর্ধনা দেয়া হয়। তবে অদৃশ্য কারণে ওই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকেনি স্থানীয় ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মী। ওই অনুষ্ঠানে মেয়র লতিফুর রহমান রতন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন কথা বলেন। এক পর্যায়ে তিনি তাদের ছি ছি করেন এবং উপস্থিত সবাইকে তার সাথে সাথে ছি বলতে বলেন। এতে উপজেলার আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়।

এ বিষয়ে জেলা পরিষদের প্যানেল মেয়র এড. হান্নান রতন বলেন, ‘গত ১৭ ফেব্রæয়ারি সাজ্জাদুল হাসান সাহেবের সংবর্ধংনা অনুষ্ঠানে লতিফুর রহমান রতন দলের রিরুদ্ধে ঘৃণা ও ক্ষোভ করেছেন। এর প্রতিবাদে ছাত্রলীগ, যুবলীগ, আওয়ামী লীগ ও মহিলা আওয়ামী লীগসহ সকল অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ করেছে। আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে মিটিং ডাকা হয়েছে। ওই মিটিংয়ে তার বিরুদ্ধে কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

একই রকমভাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদক মো. শহীদ ইকবাল। তিনি জানান, ‘ ১৭ ফেব্রুয়ারি সাজ্জাদুল হাসান মহোদয়ের সংবর্ধংনা অনুষ্ঠানে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র সাহেব স্থানীয় আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে যে ন্যাক্কারজনক বক্তব্য উপস্থাপন করেছেন এর প্রতিবাদে আমরা ঘৃণা প্রকাশ ও বিক্ষোভ করেছি। কারণ সেদিন উনার বক্তব্যে যে ভাষা ব্যবহার করেছেন, পৌর মেয়র, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও একজন সুশীল সমাজের প্রতিনিধি হিসেবে তার বক্তব্য শোভনীয় ছিলো না। তার বক্তব্যে স্থানীয় নেতাকর্মীরা কষ্ট পেয়েছে, ক্ষুব্ধ হয়েছে। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত