প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রোহিঙ্গা বোঝাই ট্রলার ডুবির ঘটনায় মৃতদেহ উদ্ধারে সংশয়

এম. আমান উল্লাহ, টেকনাফ প্রতিনিধি : কক্সবাজার টেকনাফের সেন্টমার্টিনের অদুরে বঙ্গোপসাগরে রোহিঙ্গা বোঝাই ট্রলার ডুবির ঘটনার চার দিন অতিবাহিত হলেও এখনো উদ্ধার হয়নি প্রায় অর্ধশতাধিক মানুষ। নিখোঁজদের খোঁজে উদ্ধার অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ নৌ-বাহিনী ও কোস্টগার্ড সদস্যরা। সকাল থেকেই সাগরের বিভিন্ন পয়েন্টে এ উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

উদ্ধারকারিদল জানিয়েছেন, জীবিত কাউকে পাওয়ার আশা ছেড়ে দিয়েছি। তবে কোন মৃতদেহ পাওয়ার আশায় তারা উদ্ধার অভিযান চালিয়ে যাবেন। কিন্তু সংশয় রয়েছে মৃতদেহ গুলোও পাওয়া যাবে কিনা।

এদিকে ট্রলার ডুবিতে নিহত ১৫ জনের ময়নাতদন্ত শেষে ৯ জনের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ। অপর ৬ জনের পরিচয় নিশ্চিত না হওয়ায় এখনো হাসপাতাল মর্গে পড়ে রয়েছে মৃতদেহ।

আর যাদের জীবিত উদ্ধার করেছে তাদের আদালতের নির্দেশে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ইনচার্জের (সিআইসি) মাধ্যমে স্ব-স্ব ক্যাম্পে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন টেকনাফ পুলিশের ওসি প্রদীপ কুমার দাশ।

উল্লেখ্য, গত (১০ ফেব্রুয়ারি) রাতে টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের নোয়াখালীপাড়া থেকে সাগর উপক‚ল হয়ে অবৈধভাবে সাগরপথে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় ১৩৮ জন রোহিঙ্গা বোঝাই ট্রলার সেন্টমার্টিন থেকে ৩-৪ নটিক্যাল মাইল পূর্ব-দক্ষিণে পাথরের সঙ্গে ধাক্কা লেগে পানিতে ডুবে যায়।

পরে মাছ ধরার জেলেদের মাধ্যমে খবর পেয়ে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনীর সদস্যরা উদ্ধার অভিযান চালিয়ে ১৫ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করে। এসময় দালালসহ জীবিত উদ্ধার করে ৭৩ জনকে। পরে উদ্ধারকারি সংস্থা বাংলাদেশ কোষ্টগার্ড টেকনাফ থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন। সম্পাদনা: রাকিবুল

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত