প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

লটারি ভাগ্যে রাতারাতি কোটিপতি হলেন ভারতের ড্রাইভার রূপেশ

রাশিদ রিয়াজ : ব্যবসায়ীর বাড়ির গাড়ির স্টিয়ারিং হাতে কোনওক্রমে সংসার চলত। ধনী হওয়ার সুপ্ত বাসনা মনে ছিলই। কিন্তু গাড়ি চালিয়ে সংসার চালানো গেলেও ধনী হওয়া বাসনা স্বপ্নই থেকে গিয়েছিল। তাই ভাগ্য ফেরাতে প্রায়ই গোছা গোছা লটারি কাটতেন গলসির শেখ রূপেশ। অপেক্ষা ছিল, যদি কোনওদিন সদয় হন ভাগ্যদেবী! অবশেষে মঙ্গলবার সত্যিই সদয় হলেন দেবী। দুই-দশ লাখ নয়, লটারি কেটে রাতারাতি কোটিপতি হলেন ভারতের পূর্ব বর্ধমানের গলসির আসকরণ গ্রামের রূপেশ।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গলসি বাজারের একটি দোকান থেকে ৬০ টাকার লটারির টিকিট কাটেন রূপেশ। এরপর কাজ সেরে ঘণ্টা তিনেক পর রাতে বাড়িতে ফিরে মোবাইলে লটারির নম্বর মেলাতে যান তিনি। সেই সময়ই চক্ষুচড়ক গাছ! রূপেশ দেখেন যে, প্রথম পুরস্কারের টিকিট রয়েছে তাঁরই হাতে। নিজের চোখকেও যেন বিশ্বাস করতে পারছিলেন না তিনি। কিছু সময় পর ধাতস্ত হয়ে গাড়ি মালিককে বিষয়টি জানান রূপেশ। তাঁর পরামর্শে বুধবার সকাল পর্যন্ত কাউকে না জানিয়ে সরাসরি একটি ব্যাংকে যোগাযোগ করেন। এদিন কাগজপত্র তৈরি করে টাকা পাওয়ার ব্যবস্থা করেন তিনি। তারপর প্রকাশ্যে আসে গোটা বিষয়।

রূপেশের কথায়, “লটারির রেজাল্ট মেলানোর পর কিছুতেই বিশ্বাস হচ্ছিল না প্রথম পুরস্কার কোটিটাকা পেয়েছি। কী আনন্দ হচ্ছিল বোঝাতে পারব না।” রূপেশের স্ত্রী সোনালি বেগম জানান, স্বামীর সামান্য রোজগারে সংসার চলে। লটারির ওই টাকা পেলে সংসারের সুরাহা হবে। কী করবেন ওই টাকায়? উত্তরে রূপেশ জানান, জমি কিনবেন, ভাল বাড়ি করবেন। বাকি টাকা গচ্ছিত থাকবে ভবিষ্যতের জন্য। বছরের প্রথমেই যে এমন উপহার হাতে আসবে, তা এখনও বিশ্বাস করতে পারছেন না রূপেশ ও তাঁর পরিবার। সংবাদ প্রতিদিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত