প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতের ত্রিপুরার পর ব্যান্ডউইথ রপ্তানি হবে নেপালে

মাজহারুল ইসলাম : বিএসসিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মশিউর রহমান জানিয়েছেন, প্রায় ১০০ জিবিপিএস (গিগাবাইট প্রতি সেকেন্ড) রপ্তানি করতে বিএসসিসিএলের সঙ্গে নেপাল টেলিকমের আলোচনা চলছে।

জানা যায়, নেপাল বর্তমানে প্রতিদিনের জন্য প্রায় ২৫০ জিবিপিএস চাহিদা মেটাতে চীন, ভারত এবং চেন্নাই থেকে ব্যান্ডউইথ কিনছে। কিন্তু দূরত্বের কারণে উচ্চগতি নিশ্চিত হচ্ছে না। আর তাই নেপাল বাংলাদেশ থেকে ব্যান্ডউইথ কিনতে চায়।

দুটি সাবমেরিন কেবল থেকে বাংলাদেশের ২ হাজার ৬০০ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ সক্ষমতা রয়েছে। তবে স্থানীয়ভাবে কেবল ৯০০ জিবিপিএস ব্যবহার করা হয়। বিএসসিসিএল ২০২৩ সালের মধ্যে তার তৃতীয় কেবলটি আনতে কাজ করছে। যা আরও ৭ হাজার ২০০ জিবিপিএস যুক্ত করবে। বিএসসিসিএল ২০১৬ সাল থেকে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় ত্রিপুরা রাজ্যে ১০ ব্যান্ডউইথের জিবিপিএস রপ্তানি করছে।

আরও জানা যায়, ইন্টারনেট সেবার উন্নয়নে তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবলে যুক্ত হচ্ছে বাংলাদেশ। ফাইভ জি বা পঞ্চম প্রজন্মের প্রযুক্তির যুগে অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও প্রবৃদ্ধিতে মাইলফলক হবে এ ক্যাবল। আগামী এপ্রিলে আন্তর্জাতিক পর্যায়ের সম্মিলিত উদ্যোগে (কনসোর্টিয়াম) যুক্ত হতে চুক্তি করবে সরকার। ২০২৩ সালের জুন থেকে সাবমেরিনের মূল ক্যাবলের সুবিধা পাবে বাংলাদেশ। এতে ২০৩০ সাল পর্যন্ত ইন্টারনেটের চাহিদা মিটবে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, দেশ এখন ফাইভ-জি প্রযুক্তির যুগে থাকলেও এখনও নিম্নমানের ব্রডব্যান্ড ব্যবহার হচ্ছে। এ বাস্তবতায় প্রযুক্তির উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে মাইলফলক হয়ে আসবে তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবল। সূত্র : যায়যায়দিন

সর্বাধিক পঠিত