প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

টেকনাফে বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে এক মাদক পাচারকারী নিহত, ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার

ফরহাদ আমিন, টেকনাফ প্রতিনিধি: কক্সবাজারের টেকনাফে বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে এক অজ্ঞাত মাদক পাচারকারী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় বিজিবির দুই সদস্য আহত হয়েছেন।

শুক্রবার ভোররাতে উপজেলার হ্নীলা ইউপির জাদিমুড়া নাফনদী সংলগ্ন কেওড়া বাগানে এ ঘটনা ঘটে।আহত বিজিবি সদস্যরা হলেন, ল্যান্স নায়েক নুরুল আমিন(২৭) ও শাহিনুর ইসলাম(২৫)।

টেকনাফ-২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান জানান,জাদিমুড়া মসজিদের পূর্ব পাশে কেওড়া বাগান সংলগ্ন নাফনদীর কিনারায় দমদমিয়া বিওপি একটি বিশেষ টহলদল নিয়মিত টহলে গেলে।কেওড়া বাগানে নাফনদী পাড় দিয়ে কয়েকজন লোককে বস্তা মাথায় করে হেঁটে যাচ্ছে দেখে টহলদলের সন্দেহ হওয়ায় তাদের চ্যালেঞ্জ করে।টহলদলের উপস্থিতি লক্ষ্য করা মাত্রই সশস্ত্র ইয়াবা পাচারকারীরা অতর্কিতভাবে গুলি ছোড়ে।এতে বিজিবি দুই সদস্য আহত হন। আত্মরক্ষার্থে বিজিবিও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এক পযার্য়ে ইয়াবা পাচারকারী গুলি করতে করতে কেওড়া বাগানের দিকে পালিয়ে যায়।

গুলাগুলি থামার পরে টহল দল ঘটনাস্থল তল্লাশি চালিয়ে এক লাখ ৩০হাজার ইয়াবা, একটি দেশীয় তৈরি বন্দুক, একটি তাজা কার্তুজসহ গুলিবিদ্ধ অবস্থায় অজ্ঞাত এক ব্যক্তিকে উদ্ধার করে। প্রথমে তাকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। মরদেহটি কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।তিনি আরো বলেন, নিহতের পরিচয় সনাক্তর চেষ্টা চলছে। আহত বিজিবির দুই সদস্যকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনি পদক্ষেপ প্রক্রিয়াধীন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক প্রণয় রুদ্র বলেন,বিজিবি রাতে তিনজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। এরমধ্যে দুইজন বিজিবি সদস্য। অপর একজন সাধারণ মানুষ। তার শরীরে দুটি গুলির চিহ্ন রয়েছে। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে এবং সকালে বিজিবি দুইজন সদস্যকে ছেড়ে দেওয়া হয়। সম্পাদনা: জেরিন

সর্বাধিক পঠিত