প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মতিউর রহমানে বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার যুক্তি কী যৌক্তিক?

শাহ আলম ভূঁইয়া : এই দেশে সাংবাদিকতা জগতের একজন উজ্জ্বল নক্ষত্র ও সফল সম্পাদক মতিউর রহমান। তার সঙ্গে কখনো কাজ করার সুযোগ আমার হয়নি। তবে তার ছেড়ে যাওয়া এক সময়ের জনপ্রিয় পত্রিকা ভোরের কাগজে আমি দীর্ঘ কয়েক বছর কাজ করেছি। মতিউর রহমানের পাঠকপ্রিয় ভোরের কাগজ তাকে ছাড়া কিভাবে ক্রমশ পাঠক বিচ্ছিন্ন হয়েছে তা প্রত্যক্ষ করলাম। সুযোগ্য সম্পাদক ব্যতীত একটি গণমাধ্যম ভালোভাবে টিকতে পারে না, এটা বুঝতে পেরে ২০০০ সালে ভোরের কাগজ ছেড়ে দেশের প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী দৈনিক ইত্তেফাকে প্রতিনিধি হিসেবে কাজ শুরু করে আজ পর্যন্ত আছি।

এর মধ্যে অনেক গণমাধ্যমে চলে গিয়ে কাজ করার সুযোগ থাকলেও যাইনি। যা বলছিলাম, শ্রদ্ধেয় মতিউর রহমান তিনি শুধু প্রথম আলোর সম্পাদক নন। তিনি নিজেই একটি ইনস্টিটিউট। একজন পরিশ্রমী ও আইকন সম্পাদক তিনি। যতোদূর জানি তিনি পরিশ্রমী ও মেধাবী সংবাদকর্মীদের যথাযথ মূল্যায়ন করেন। এমনকি তার অধিনস্ত প্রত্যেক কর্মীর পারিবারিক খোঁজখবরও রাখেন।

মতিউর রহমানের মতো একজন গুণী সম্পাদকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা হয়েছে তা জেনে আমি খুবই অবাক ও বিস্মিত হয়েছি। আমি ব্যক্তিগতভাবে এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত