প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিতর্ক ছড়ালে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি রাব্বানীর

সমীরণ রায়: যারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছাত্রলীগ নিয়ে বিতর্ক ছড়াবে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে এমন হুঁশিয়ারি দিলেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

রোববার বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে ক্যাম্পাসের রাজু ভাস্কর্যে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতদের অবস্থান নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ হুশিয়ারি দেন। একই সঙ্গে শনিবার রাতে ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে পদবঞ্চিত নারী নেত্রীদের ওপর হামলা করার অভিযোগ নাকচ করে দেন তিনি। ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের পর  সংগঠনের বেশ কয়েক জনের বিরুদ্ধে যে বিভিন্ন অভিযোগ উঠেছে, তার লিখিত দালিলিক প্রমাণ দিতে বলেন তিনি।

ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, সবার কাছে একটা জিনিস স্পষ্ট বলছি, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমকে ব্যবহার করে যে মিথ্যাচার করা হচ্ছে সামাজিক ভাবে হেয় করা হচ্ছে, এটা বলার ভাষা নেই, অত্যন্ত দুঃখজনক। এই অপরাজনীতি বন্ধ হোক এটা আমরা চাই।  স্পষ্টভাবে বলছি, এরপর আইনি ব্যবস্থা নেবো। ইতোমধ্যে কয়েকজন মানহানির মামলা করেছে।

ছাত্রলীগে কোন কাদা ছোড়াছুড়ি চান না উল্লেখ করে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা একেবারে পরিবারের মত থাকতে চাই। ভুল ভ্রান্তি হলে আমরা বসবো, কথা বলবো। বিতর্কের অবসান চাই। প্রমাণ দিতে পারলে আমরা অবশ্যই ব্যবস্থা নেব। একজনও আমাদের কাছে কোনো প্রমাণ দেননি। অভিযোগ থাকলে সংগঠনের ফোরামে কথা বলবে। এখানে যদি ন্যায় বিচারের না পেলে তারপরেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বলবে। কিন্তু আমাদের কাছে লিখিত কোনো অভিযোগ আসেনি, কিসের ভিত্তিতে আমরা ব্যবস্থা নিবো।

তিনি বলেন, আমাদের কাছে কোনো তথ্য-উপাত্ত সহ কেউ লিখিত অভিযোগ করলে আমরা তাদের দালিলিক প্রমাণ দেখে ক্রস চেক করে ওই শূন্যস্থান পূরণ করবো। এখানে যোগ্যতা অনুসারে সুযোগ দেওয়া হবে। এরপর যদি কোনো যোগ্য কিন্তু পদবঞ্চিত থেকে থাকে তাদের প্রদানের জন্য নেত্রীর সঙ্গে কথা বলব। এজন্য যে অভিযোগ করবে তাকে অবশ্যই ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে লিখিত প্রমাণ দিতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত