প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সিরিয়ার প্রতিষ্ঠিতব্য সেফ জোন তুরস্কের নিয়ন্ত্রণে থাকতে হবে, বললেন এরদোগান

আব্দুর রাজ্জাক : সিরিয়া থেকে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহারের ঘোষণার পর থেকেই সেখানে একটি নিরাপদ অঞ্চল গড়ার ব্যাপারে দফায় দফায় আলোচনা করছে তুরস্ক ও যুক্তরাষ্ট্র। সিরিয়ার তুর্কি সীমান্তবর্তী এলাকায় মার্কিন সমর্থিত সশস্ত্র যোদ্ধাদের রক্ষায় এই নিরাপদ অঞ্চল গঠিত হবে, তবে এটি আঙ্কারার নিয়ন্ত্রণে থাকতে হবে বলে শনিবার জানিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। আনাদোলু এজেন্সি, ইয়েনি সাফাক, প্রেস টিভি

গত ডিসেম্বরে সিরিয়া থেকে ২ হাজার মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহার করার নির্দেশ দেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার নির্দেশনার পরই খোদ মার্কিন সামরিক বিভাগ ও মিত্রদের থেকে সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়।

সিরিয়া থেকে মার্কিন সৈন্য চলে যাওয়ার খবর সবচেয়ে বেশি উদ্বিগ্ন করেছে পশ্চিমা সমর্থিত বিদ্রোহীদের। তার অন্যতম কুর্দি সমর্থিত যোদ্ধা সংগঠন ওয়াইপিজিসহ অন্যন্যরা ট্রাম্পের নির্দেশনার পর নিরাপত্তা দাবি জানিয়েছে। কেননা, তুরস্ক তাদের সন্ত্রাসী মনে করে এবং যে কোন মূহুর্তে ওয়াইপিজি ও কুর্দিদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে।

তুরস্কের এমন অবস্থানের কারণে ট্রাম্প এরদোগানের সঙ্গে একটি নিরাপদ এলাকা গঠনের কথা বললে তিনি রাজি হন এবং তা আঙ্কারার নিয়ন্ত্রণেই থাকতে হবে বলে জানান।

এরদোগান বলেন, ‘আমরাই সীমান্তে সবচেয়ে বেশি বন্দুক হামলার শিকার হয়েছি। নিজেদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার অধিকার সকলের রয়েছে তাই আফ্রিন, আল-বাবা ও জারাবুলাস প্রদেশের মতো টেকসই নিরাপদ অঞ্চলের জন্য এর নিয়ন্ত্রণ আঙ্কারার হাতেই থাকতে হবে।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত