প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খুলনায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীর পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

শরীফা খাতুন : খুলনা-৪ আসনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি মনোনীত দুই প্রার্থী একে অপরের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনসহ সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ উত্থাপন করেছেন। শনিবার দুপুরে পৃথক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আব্দুস সালাম মুর্শেদী ও বিএনপি প্রার্থী আজিজুল বারী হেলাল অভিযোগ উত্থাপন করেন।

খুলনা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তৃতায় অভিযোগ করে আব্দুস সালাম মুর্শেদী বলেন, ধানের শীষের প্রার্থী নিজে উপস্থিত থেকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা করছে। ধানের শীষে ভোট না দিলে নির্বাচনের পর দেখে নেয়া হবে বলেও হুমকি দিচ্ছেন তারা। এমনকি তারা বর্তমান সরকারের অভাবনীয় সাফল্যে ঈর্ষান্বিত হয়ে ধানের শীষের প্রার্থী ও তার দলীয় নেতাকর্মীরা বিভিন্ন স্থানে মিথ্যাচার করছে। নির্বাচনে ভরাডুবি বুঝতে পেরে বিএনপির প্রার্থী মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগ করে চলেছেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা এসএম কামাল হোসেন, তেরখাদা উপজেলা চেয়ারম্যান সরফুদ্দিন বিশ্বাস বাচ্চু।

অপরদিকে বেলা সাড়ে ১১ টায় দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি প্রার্থী আজিজুল বারী হেলাল বলেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও তার দলীয় নেতাকর্মীরা বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর একের পর এক হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও তার দলীয় নেতাকর্মীদের তা-বে বিএনপির নেতাকর্মীরা বাড়িতে থাকতে পারছে না। গত ৪/৫ দিনে তিন উপজেলার বেশ কয়েকটি স্থানে বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ প্রার্থী নির্বাচনী আচরণবিধির ধারও ধারছেন না।

এ সব বিষয়ে নির্বাচন কমিশন, পুলিশ প্রশাসনকে জানিয়েও কোন কাজ হয়নি। আমাদের কাছে মনে হচ্ছে আওয়ামী লীগ চাইছে না বিএনপি নির্বাচনী মাঠে থাকুক। তাই যদি হবে, তাহলে সরকার ঘোষণা করে দিক, বিএনপি নির্বাচনী মাঠ ছেড়ে চলে যাবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন – খুলনা জেলা বিএনপির সভাপতি এসএম শফিকুল আলম মনা, সহসভাপতি মনিরুজ্জামান মন্টু, আব্দুর রশিদ, মেজবাউল আলম, মনিরুল হাসান বাপ্পী, মোল্লা খায়রুল ইসলাম প্রমুখ। সম্পাদনা : মুরাদ হাসান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ