প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিএনপির অনশন ভাঙালেন অধ্যাপক এমাজউদ্দিন আহমেদ
৭ দফা দাবি মানলে নির্বাচনে যাবে বিএনপি

শিমুল মাহমুদ : কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাজা বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিএনপির গণঅনশন কর্মসূচি শেষ হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক এমাজউদ্দিন আহমেদ শীর্ষ নেতাদের পানি পান করিয়ে এই অনশন ভাঙান।

বৃহস্পতিবার (১ নভেম্বর) বিকেল ৩টার পর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম, বিএনপির স্থায়ী কমিটির প্রবীণ সদস্য ড. মোশাররফ হোসেনসহ শীর্ষ নেতাদের পানি পান করিয়ে এই অনশন ভাঙানো হয়।

সকাল ১০টায় রাজধানীর ঢাকা মহানগর নাট্য মঞ্চে বিএনপির উদ্যোগে এ গণঅনশন কর্মসূচি শুরু হয়। অনশন কর্মসূচিতেও নেতাকর্মীদের ঢল নামে। ঢাকা মহানগর নাট্য মঞ্চ প্রাঙ্গণ লোকে লোকারণ্য হয়ে পড়ে।

সভাপতিত্বের বক্তব্যে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমেই কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি আদায় করা হবে।

নেতাকর্মীদের কঠোর আন্দোলনের প্রস্তুতি গ্রহণ করার আহবান জানিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, দেশে যদি জাতীয় নির্বাচন করতে হয় ৭ দফাকে দাবি মানতে হবে। ৭দফা দাবি বাস্তবায়ন না করে আগামী সংসদ হতে দেবো না। এবং সম্ভব হবে না।
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, আমরা ভেবে ছিলাম আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া খালাস পেয়ে যাবেন কিন্তু ষড়যন্ত্র করে ৫বছরের সাজা ১০ বছর করা হয়েছে। আমরা এটা গ্রহণ করি না। আমাদের এই আন্দোলন চলবে। যতোদিন না পর্যন্ত দেশে একটি নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি না হয় এবং আমাদের নেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্ত না করতে পারবো।

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মামলার রায় ৭ দিনের মধ্যে ধূলোর মতো উড়ে যাবে।

গণঅনশনে বিএনপি এবং বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন জাতীয়তাবাদী যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, মহিলাদল, শ্রমিকদল কৃষকদল, ছাত্রদলের বিভিন্ন ইউনিট ও শাখার হাজার হাজার নেতাকর্মী-সমর্থক যোগ দিয়েছেন। তারা খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়ের করা সব মামলা প্রত্যাহার এবং সাজা বাতিলের দাবিতে মুহুর্মুহু স্লোগান দেন। তীব্র রোদ উপেক্ষা করে কয়েক হাজার নেতাকর্মী-সমর্থক মহানগর নাট্যমঞ্চের সামনের চত্বরে অনশন পালন করেন।

গণঅনশন কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে মহানগর নাট্য মঞ্চের আশেপাশে কঠোর নিরাপত্তার বলয় গড়ে তোলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। পাশাপাশি সাদা পোশাকে বিভিন্ন সংস্থার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদেরও মোতায়েন করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ