প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নামাজে যে পরিমাণ কেরাত পড়া সুন্নত

ইসলাম ডেস্ক : ফরজ, সুন্নত ও নফল নির্বিশেষে সব নামাজেরই রয়েছে ফরজ, ওয়াজিব ও সুন্নত বিভিন্ন আমল। নামাজের অন্যতম ফরজ হলো কেরাত পড়া তথা কোরআন তেলাওয়াত। এ তেলাওয়াতের রয়েছে আবার বেশ কিছু সুন্নত। নামাজে কেরাতের সুন্নতগুলো নিম্নরূপ :

– নামাজের শুরুতে সানার পরে আউযুবিল্লাহি মিনাশ শায়তনির রজিম) পড়া। (হাশিয়াতুত তাহাবি আলা মারাকিয়িল ফালাহ : ১/৩৫৩)।

– প্রত্যেক রাকাতের শুরুতে বিসমিল্লাহ পড়া। (হাশিয়াতুত তাহাবি আলা মারাকিয়িল ফালাহ : ১/৩৫৩)।

– সূরা ফাতেহার পর আমিন বলা। (হাশিয়াতুত তাহাবি আলা মারাকিয়িল ফালাহ : ১/৩৫৩)।

– ফজর এবং জোহরের নামাজে তিওয়ালে মুফাস্সাল অর্থাৎ সূরা আল-হুজুরাত থেকে সূরা আল-বুুরুজ পর্যন্ত আসর ও এশার নামাজে আউসাতে মুফাসসাল অর্থাৎ সূরা আল-বুরুজ থেকে সূরা লাম ইয়াকুন পর্যন্ত, মাগরিবের নামাজে সূরা লাম ইয়াকুন সূরা আন-নাস পর্যন্ত সূরাগুলো থেকে (কোনো সূরা) পাঠ করা। (হাশিয়াতুত তাহাবি আলা মারাকিয়িল ফালাহ : ১/৩৫৭-৩৫৮)।

– ফজরের প্রথম রাকাতকে দীর্ঘ করা। (হাশিয়াতুত তাহাবি আলা মারাকিয়িল ফালাহ : ১/৩৬০)

– সানা, আউযুবিল্লাহ, বিসমিল্লাহ এবং আমিন আস্তে বলা। (হাশিয়াতুত তাহাবি আলা মারাকিয়িল ফালাহ : ১/৩৫৫-৩৫৬)।

– ফরজ নামাজের তৃতীয় আর চতুর্থ রাকাত শুধু সূরা আল-ফাতেহা পড়া। (হাশিয়াতুত তাহাবি আলা মারাকিয়িল ফালাহ : ১/৩৬৮)

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ