প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আওয়ামী লীগ জনগণের জন্য কাজ করে যাচ্ছে

সুভাষ সিংহ রায় : আমাদের উপমহাদেশে যতগুলো রাজনৈতিক দল আছে, সে দলগুলোর মধ্যে আওয়ামী লীগ সব থেকে অনন্য অসাধারণ।  আওয়ামী লীগ জন্মলগ্ন থেকেই মানুষের জন্য কাজ করে আসছে। আমাদের দেশে আওয়াম থেকে এসেছে আওয়ামী লীগ। আর আওয়াম অর্থ হচ্ছে জনগণ। জনগণের দলই হচ্ছে আওয়ামী লীগ। ৬৯ বছর বয়সে যতবারই আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে ততবারই দেশের জণগণের জন্য কাজ করেছে। যুক্তফ্রন্টের সময় আওয়ামী লীগ মাত্র ৫৬ দিন ক্ষমতায় ছিল। এ ৫৬ দিনই এ দেশের মানুষের জন্য কাজ করেছে। আওয়ামী লীগ সবসময় মানুষের জন্য কাজ করে।

আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসায় প্রথম মাতৃভাষা ছিনিয়ে আনতে পারি। এবং তারপরে মাতৃভাষা দিবস পালন করতে পারি। আওয়ামী লীগ দলটি খুব সহজে সৃষ্টি হয়নি, খুব লড়াই করে ছিনিয়ে আনতে হয়েছে। পাকিস্তানের বিপক্ষে ছিলো আওয়ামী লীগ। বাংলাদেশে যত দল এসেছে, তার প্রতিপক্ষ হয়েছে আওয়ামী লীগ।  স্বাধীনতা যুদ্ধের পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মাত্র ১৩১৪ দিন রাষ্ট্র ক্ষমতায় ছিলেন। এ কয় দিনে সারা পৃথিবীর মধ্যে ১৪০ টি দেশের স্বীকৃতি অর্জন করেছিলেন। তিনি সব সময় বাংলাদেশের মানুষকে নিয়ে লড়াই করেছেন।  সেই সময়ে আন্তর্জাতিক বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তিকে ফিরিয়ে এনেছেন।

বর্তমানে আওয়ামী লীগ সরকারের জন্য আমরা সমুদ্রসীমা জয় করতে পেরেছি। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করতে পেরেছি। সবকিছু সম্ভব হয়েছে আওয়ামী পন্থায়। আওয়ামী পন্থা ছাড়া কখনও কিছু সম্ভব নয়। বাংলার অবিসংবাদিত মহানায়ক বঙ্গুবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ৬৯ বছর বয়সে আওয়ামী লীগ মাত্র সাড়ে ২২ বছর ক্ষমতায় ছিলেন। বাকি বছর গুলো স্বৈরাচারী শাসকরা ক্ষমতায় ছিলো। ৬৯ বছর ধরেই যদি আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকতো, তাহলে বাংলাদেশ আজ উন্নত বিশ্বের তালিকায় নাম থাকতো।

আওয়ামী লীগ প্রথম যাত্রা শুরু করে খালি হাতে। বাংলাদেশ ব্যাংকে কোন টাকা ছিল না। বর্তমানে বাংলাদেশে কোন অভাব নেই। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে পেরেছি এবং আওয়ামী লীগের জন্য যে ১০ তলা ভবন তৈরি, এ ভবন থেকে দেখিয়ে দিচ্ছে আওয়ামী লীগ কত উপরে। এ ১০ তলা ভবনটি আওয়ামী লীগের একটি প্রতিষ্ঠান। অন্যান্য বিরোধী অনেক দল বাংলাদেশে ক্ষমতায় এসেছে। তারা কোনদিন কোন ভবন তৈরি করেনি। বিরোধী যে দল ক্ষমতায় এসেছে, তারা এদেশে কোন উন্নতি করেনি। তারা তাদের নিজেদের জন্য বাড়ি গাড়ী করেছে এবং বিদেশে টাকা পাচাঁর করেছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে আমাদের দেশের রাস্তাঘাটের

পরিচিতি : সিনিয়র সাংবাদিক ও কলামিস্ট/ মতামত গ্রহণ : রাশিদুল ইসলাম মাহিন/ সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত