প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যেভাবে হত্যা করা হয় শাহজাহান বাচ্চুকে

ডেস্ক রিপোর্ট : মুক্তমনা ব্লগার, কবি ও প্রকাশক বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) মুন্সীগঞ্জ জেলার সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান বাচ্চুকে (৫৫) গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে তাকে হত্যা করা হয়। শাহজাহান বিশাখা প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী ছিলেন।

জানা গেছে, জেলার সিরাজদিখান উপজেলার মধ্যাপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব কাকালদী গ্রামের তিন রাস্তার মোড়ে শাহজাহানের বাড়ি থেকে আধা কিলোমিটার পূর্ব দিকে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।
সিরাজদিখান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম ও পরিদর্শক (তদন্ত) হেলাল উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশ থানায় নিয়ে যান।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পূর্ব কাকালদী (মুন্সীগঞ্জ-শ্রীনগর সড়কের) তিন রাস্তার মোড়ে আনোয়ার হোসেনের ফার্মেসির সামনে বসে কথা বলছিলেন শাজাহান বাচ্চু।
সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে দুটি মোটরসাইকেলে চারজন লোক এসে তাকে ধরে রাস্তায় নিয়ে আসে। তারা লোকজনকে সরে যেতে বলে এবং একটি ককটেল ফাটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে।
শাজাহান বাচ্চুকে রাস্তায় এনে তার বুকের ডান পাশে একটি গুলি করে। এসময় সিরাজদিখান থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মাসুম ওই রাস্তা দিয়ে মুন্সীগঞ্জ থেকে থানার দিকে যাচ্ছিলেন।

এএসআই মাসুম জানান, ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগে একটি বিকট আওয়াজ শুনতে পান। সামনে এসে দেখেন একজন লোক পড়ে আছেন। তিনি প্রথম ভেবেছিলেন, বিদ্যুতের তারে সমস্যা হয়েছে কি না।
তিনি বলেন, এসময় পাশের রাস্তা থেকে তাকে উদ্দেশ্য করে যুবকরা বলছে- শালাকে গুলি কর। এমন সময় একজন ব্যাগ থেকে একটি ককটেল ছোঁড়ে তার দিকে। তিনি দৌড়ে পিছিয়ে যান।
মাসুম বলেন, তিনি পিস্তল বের করতেই আরেকজন তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। তিনি বসে গুলি করার চেষ্টা করলে বিপরীত রাস্তায় সন্ত্রাসীরা দৌড়ে দুই মোটরসাইকেলে চারজন কেটে পড়ে।
শাজাহান বাচ্চু জেলা কমিনিস্ট পার্টির সাবেক সাধারণ সম্পাদক। তিনি একাধারে একজন ব্লগার, সাংবাদিক, কবি, প্রকাশক ও সংগঠক। ঢাকার বাংলাবাজারে বিশাখা প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী ও সাপ্তাহিক আমাদের বিক্রমপুর পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ছিলেন তিনি। সূত্র : পরিবর্তন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ