প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সাতক্ষীরায় যুবককে পিটিয়ে হত্যা

শেখ ফরিদ আহমেদ ময়না,সাতক্ষীরা: সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ধানকাটা নিয়ে বিরোধের জের ধরে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। নিহতের পিতা কেরামত আলী গাজী ঘাতক জাহিদ হাসানকে আসামী করে থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন। তবে, পুলিশ এখনো পর্যন্ত ঘাতক জাহিদ হাসানকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে কলারোয়া উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের খোর্দবাঁটরা গ্রামে এ হত্যাকান্ডের ঘটনাটি ঘটে। নিহতের নাম মেহেদী হাসান (২৪)। সে উপজেলার খোর্দবাটরা কেরামত আলী গাজীর ছেলে।

নিহতের চাচা লোকমান আলী গাজী জানান, খোর্দবাটরা গ্রামের গফ্ফার গাজীর ছেলে ধানকাটা শ্রমিক জাহিদ হাসান ও মেহেদী হাসানসহ ১০ জন মিলে একটি মাঠে ধান কাটতে যায়। কিন্তু ধান কাটতে যেয়ে মেহেদী একটু কম ধান কাটায় তাকে বাদ দেয়ার কথা বললে জাহিদ ও মেহেদির মধ্যে মাঠে প্রথমে কথাকাটাকাটি ও মারামারি হয়। পরে এরই জের ধরে তাদের বাড়ির ধারে জাহিদ একটি গাছের ডাল দিয়ে মেহেদিকে মারপিট করে।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সরশকাটি বাজারের গ্রাম্য ডাক্তার প্রদীপ কুমার দের চেম্বারে নিয়ে গেলে তিনি তাকে কলারোয়া হাসপাতালে পাঠানোর পরামর্শ দেন। সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার শফিকুল ইসলাম তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

সাতক্ষীরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেরিনা আক্তার জানান, একটি তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এই হত্যাকান্ডটি ঘটে। সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে লাশের ময়নাতদন্ত করা হচ্ছে। নিহতের পিতা বাদী হয়ে কলারোয়া থানায় মামলা করেছেন। তিনি আরো জানান, ঘাতককে গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত