প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নতুন ধারাবাহিক নিয়ে আসছেন লাভলু

নিজস্ব প্রতিবেদক : অনেকদিন পর নতুন এক ধারাবাহিক নাটক নিয়ে দর্শকের সামনে আসছেন অভিনেতা এবং নির্মাতা সালাহউদ্দিন লাভলু। নাটকটির নাম ‘মাই নেম ইজ ব্যাড’। এখানে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছেন লাভলু। আগামীকাল সোমবার থেকে এটিএন বাংলায় রাত সাড়ে ৯টায় নাটকটি প্রচারিত হবে। নাটকটি রচনা করেছেন রওনক হাসান।

‘মাই নেম ইজ ব্যাড’ নিয়ে সালাউদ্দিন লাভলু বলেন, কমেডি ঘরানার নাটক। তবে আমার আগের নাটকের চেয়ে পুরোটাই ভিন্ন প্রেক্ষাপটের গল্প। আশা করি, দর্শক দেখলেই বুঝতে পারবে, কতটা ভিন্নতা এনেছি আমার নতুন নাটকে।

নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন আজিজুল হাকিম, গোলাম ফরিদা ছন্দা, রওনক হাসান, সানজীদা প্রীতি, শ্যামল মওলা, তাহমীনা মৌ, সতীর্থ রুবেল, সামিরা অথৈ, শারমিন আঁখি, তিতান, নরেশ ভূইয়া, মাহবুবা রেজা নূর, জামিল হাসান প্রমুখ।

‘অভিনয় করার মতো ছবি পাচ্ছি না। যাদের কাছ থেকে ছবিগুলো করার প্রস্তাব আসছে, তাদের অনেকেই ছবি বোঝে না, আমাদের ওপর নির্ভর করে ছবি বানাতে চায়। যে চলচ্চিত্রের গল্প ও মেকিং বোঝে না, তারা কেমন ছবি বানাবে? আর এতে করে আমাদের চলচ্চিত্রের কী হবে, তা তো দেখছি। আমি এদের সঙ্গে নিজেকে জড়াতে চাই না, যে কারণে এখন ছবি কম করছি বা করার মতো ছবি পাচ্ছি না।’ ছবিতে কাজ করা প্রসঙ্গে কথাগুলো বলছিলেন সাদিয়া পারভিন পপি।

পপি আরো বলেন, ‘অনেক নির্মাতাই কাজের বিষয়ে কথা বলেন। প্রথমে মনে হয়, তাঁরা বিশ্বমানের ছবি বানাতে এসেছেন। এরপর একসময় মনে হয়, যাঁরা কাজের বিষয়ে কথা বলছেন, তাঁরা অনেক কিছুই না বুঝে বিশ্বমানের ছবি নির্মাণের কথা বলছেন। আরে আগে একটা বাংলাদেশের বাংলা ছবি বানিয়ে দেখান, তারপর বিশ্বমান নিয়ে চিন্তা করবেন।’

‘শুধু পরিচালক নয়, আমাদের দেশে চিত্রনাট্যকারেরও অভাব রয়েছে। আবার অনেক প্রযোজক আছেন, যাঁরা নিজেরা নায়ক হতে চান। সঙ্গে আমাদের মতো শিল্পী, যাঁদের দেশের মানুষ শিল্পী হিসেবে পছন্দ করেন, তাঁদের ছবিতে যুক্ত করে নিজের পরিচিতি বাড়াতে চান। এমন কাজ করে আমার কী লাভ? কারণ দর্শকদের ভালো কাজ উপহার দিয়েছি বলেই আমি পপি, যদি খারাপ কাজ উপহার দিই, তাহলে আগের জায়গা থেকে সরে যেতে হবে। এটা আমি কিছুতেই করতে পারি না,’ যোগ করেন পপি।

কোন ধরনের ছবিতে যুক্ত হতে চান পপি? এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘আমি চলচ্চিত্রে কাজ করার জন্য অধির আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছি। এমন ছবিতে কাজ করতে চাই যে ছবি আমাদের দেশের চলচ্চিত্রকে এক ধাপ এগিয়ে নেবে। কারণ, দর্শক এখন প্রমাণ দিয়েছে যে একটু ভালো ছবি মুক্তি পেলেই হিট হয়। অনেকেই বলেন, এখন চলচ্চিত্রের সময় ফুরিয়ে গেছে। আমার মনে হয় তা ঠিক নয়, এখন সময় হচ্ছে ভালো ছবি নির্মাণ করার।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত