প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সঠিক সময়ে পদ্মা সেতু উদ্বোধন করা হবে: সেতুমন্ত্রী

নাদিম মাহমুদ, মুন্সীগঞ্জ: সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পদ্মা সেতু সঠিক সময়ে উদ্বোধন করা হবে। যথা সময়ে কাজ শেষ করার জন্য দিন রাত কাজ চলছে। কোয়ালিটি বজায় রেখে যথা সময়ে কাজ শেষ করার জন্য চাইনিজ কোম্পানী মেজর ব্রীজ এবং সিনোহাইড্রো তারা সর্বাত্বক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

শনিবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার মাওয়া এলাকায় পদ্মা সেতুর কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে সাংবাদিকদের এ সব কথা বলেন সড়ক ও সেতু মন্ত্রী।

আগামী ২ ফেব্রুয়ারী গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই দিন টুঙ্গিপাড়া যাওয়ার প্রাক্কালে প্রধানমন্ত্রী স্বপ্নের পদ্মা সেতুর কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করতে পারেন বলেও জানান সেতুমন্ত্রী।

এ সময় তিনি আরও বলেন, সরকারের অগ্রাধিকার এ প্রকল্প ১ নাম্বার মেঘা প্রোজেক্ট। পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ পুরোদমে এগিয়ে চলছে। পদ্মা সেতু এখন স্বপ্নের সিমানা পেরিয়ে। পিলারের উপর স্প্যান ইন্সটল করার মধ্যে দিয়ে কাজ হচ্ছে। পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ এখন দৃশ্যমান।

পদ্মা সেতু খুব আনপ্রেডেক্টবল সেতু, নিচে যে সয়েল কন্ডেশন সেটা পরিমাপ করা খুব চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার, আমাদের এক্সপাটরা সফল। তারা প্রত্যেকটি বিষয় চুলচেরা বিশ্লেষণ করে ও কোয়ালিটি ঠিক রেখে এগিয়ে যাচ্ছে।

কোয়ালিটিতে আমাদের ঘাটতি রাখা যাবে না এবং তাড়াহুড়া করার বিষয় নেই। সে কারণে মাঝে মাঝে কিছু সময় পূর্ব নিধার্রিত তারিখ দেওয়া কঠিন। তার পরেও যখন প্রথম স্প্যান ইন্সটল হয়েছে, এখন আমরা পুরোপুরি আশাবাদী যে শুধু নির্মাণ কাজ যথা সময়ে এগিয়ে যাবে।

এই প্রর্যন্ত মাওয়া প্রান্তে ২৪০টি পাইলের মধ্যে ৯৩ পাইলের কাজ সম্পূর্ণ শেষ হয়েছে এব্ং ১১টি আংশিক হয়েছে । জারিয়া ব্রাইডা পাইল ১৯৩ টির মধ্যে সব কয়টি পাইলের কাজ ইতিমধ্যে শেষ এবং মায়া ব্রাইডার পাইলিং ১৭২টির মধ্যে ৭৩টি সম্পূর্ন হয়েছে।

এই পযর্ন্ত ৪টি পিলারের কাজ শেষ হয়েছে, ১২টি পিলারের কাজ চলমান রয়েছে এর মধ্যে একটি স্প্যান বসানো হয়েছে এবং দ্বিতীয় স্প্যানটি আগামী ৪-৫ দিনের মধ্যে এই পিলারের উপর  বসে যাবে বলে আমরা আশাবাদী।

মাওয়ায় আরো ১০টি স্প্যানের ফ্রেব্রিকেশনের কাজ চলছে, এবং চিনে আরো ১৬টি স্প্যান শিপমেন্টের জন্য প্রস্তুত, আমাদের সার্বিক অগ্রগতি ৫১.৫০ নদী শাসন ৩৫.৫০ মূল সেতুর অগ্রগতি ৫৬%।

সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কেউ যদি বলে মেজর ব্রীজ এবং সিনোহাইড্রো সময় চেয়েছে তাহলে এটা অপপ্রচার এটা সঠিক নয়, তিনি বলেন এখন কোন পিলার নিয়ে সমস্যা নেই, ডিজাইনেরও এই মূহুর্তে প্রবলেম নেই। আপনাদের এতো ভয় কেন যখন স্প্যান উঠে গেছে ভয় পাওয়ার কারণ নেই। ডিজাইনের কোন পরিবর্তন হবে না যা আছে তাই।

আরো এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমি বলেছিলাম ৭-৮ দিন পরপর স্প্যান বসবে, কিছু প্রবলেম হয়েছে কিন্তু একটা পর্যায়ে ৭ দিন পরপর বসবেই। প্রথম দুই একটা সমস্যা হতেই পারে এর পরের গুলো সঠিক ভাবে উঠবে আশা করা যায়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, পদ্মা সেতু প্রজেক্ট ডাইরেক্টর শফিকুল ইসলাম, প্রদ্মা সেতু নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আব্দুল কাদেও সহ আরও দেশী বিদেশী উর্ধ্বতন কর্মকর্তা।সম্পাদনা: উমর ফারুক রকি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত