প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ত্রিদেশীয় সিরিজে সোমবার বাংলাদেশ – জিম্বাবুয়ে মুখোমুখি

এল আর বাদল : মাঠ, দর্শক আর আবহাওয়া সবকিছু যেনো টাইগারদের অনুকূলে। সে কারণেই দলনেতা মাশরাফি বিন মোর্তুজা অভয়ে জানালেন সিরিজ জয়ের সম্ভাবনার কথা। দীর্ঘ আট বছর পর মিরপুর স্টেডিয়ামে ত্রিদেশীয় সিরিজের সোমবার উদ্বোধনী ওয়ানডে ম্যাচে স্বাগতিক বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে পরস্পরের মোকাবিলা করবে। খেলা শুরু হবে দুপুর ১২টায়।

মিরপুর স্টেডিয়ামে অনেক সুখস্মৃতি আছে বাংলাদেশ দলের। এবার মিরপুর স্টেডিয়াম যে মাইলফল সৃষ্টি করতে যাচ্ছে তার ভাগিদার হতে পারছে না লাল-সবুজের দলটি। ১৭ জানুয়ারি বিশ্বের ষষ্ঠ ক্রিকেট স্টেডিয়াম হিসেবে শততম ওয়ানডে ম্যাচ আয়োজন করতে যাচ্ছে মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম। ওই দিন শততম ম্যাচের অংশীদার হচ্ছে শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ে। সোমবার বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ম্যাচটি হবে মিরপুর মাঠের ৯৯তম ম্যাচ।

শততম ওয়ানডে আয়োজন করতে মিরপুরের সময় লেগেছে ১১ বছর। যা অন্যান্য দেশ থেকে সবচেয়ে কম সময়ের রেকর্ড। তবে মন খারাপের মতো বিষয় হচ্ছে এমন একটি দিবস নাকি উদযাপন করবে না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। এমনটিই জানিয়েছে ক্রিকেটের ওয়েবসাইট ‘ক্রিকইনফো’। উল্লেখ্য, ২০০৬ সালের ৮ ডিসেম্বর বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে ক্রিকেটে যাত্রা শুরু মিরপুর স্টেডিয়ামের।
জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগে টাইগার দলপতি মাশরাফি যেনো জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আত্মবিশ্বাসি। পাশাপাশি সতীর্থদের উপরও তার আগাধ আস্থা। মাশরাফি সাংবাদিকদের বলেছেন, সামর্থ্যরে ৭০ ভাগ দিতে পারলেই জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে জেতা সম্ভব। মাশরাফি এও বলেছেন, এই সিরিজে আমরা মূলত জিম্বাবুয়ে ও শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধেই লড়ছি না।

আমাদের সাবেক গুরু লঙ্কার প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে এবং জিম্বাবুয়ের কোচ হিথ স্ট্রিকের বিরুদ্ধে লড়তে হচ্ছে।
তিনি বলেন, দুই কোচ যেমন আমাদের জানেন, আমরাও তাদের পরিকল্পনা জানি। আমরা যেটা চাচ্ছি মাঠে সেটা ৭০-৮০ ভাগ করতে পারলে আশা করি কোনো সমস্যা হবে না। জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক গ্রায়েম ক্রেমার কিন্তু মাশরাফিদের সমীহ করতে ভোলেননি। বাংলাদেশ দলকেও বলেছেন ঢের শক্তিশালী। তবে জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে সহজে বাংলাদেশ জিতবে না, সেটা জানিয়েছেন সাংবাদিকদের।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত