শিরোনাম
◈ স্বল্প সংখ্যক কোটা থাকতে পারে অনগ্রসর ও প্রতিবন্ধিদের জন্য: জি এম কাদের ◈ ৫ শতাংশ কোটা রেখে সংসদে আইন পাসের দাবিতে ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম ◈ রেলওয়ের চাকরিতে ৪০ শতাংশ পোষ্য কোটা কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট ◈ আন্দোলনকারীদের ওপর পুলিশ লেলিয়ে দেবেন না: সুপ্রিম কোর্ট বার সভাপতি ◈ জামালপুরে বন্যার পানিতে গোসলে নেমে ৪ জনের মৃত্যু ◈ সাংবাদিকদের পেনশন স্কিমে যুক্ত হওয়ার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর ◈ মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধাদের বিরুদ্ধে এতো ক্ষোভ কেনো, প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর ◈ ট্রাম্পের ওপর হামলা নিন্দনীয়: শেখ হাসিনা  ◈ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিকে আর্তমানবতার সেবায় আরও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালনের আহ্বান রাষ্ট্রপতির ◈ কোটা প্রসঙ্গে আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে এখন আমার বলার কিছুই নাই: প্রধানমন্ত্রী 

প্রকাশিত : ১৯ জুন, ২০২৪, ১১:৪৬ দুপুর
আপডেট : ১৯ জুন, ২০২৪, ১০:৫৫ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

আচরণবিধি ভঙ্গ করায় তানজিম সাকিবকে জরিমানা

শামীম হাসান: নেপালের অধিনায়ক রোহিত পৌডেলের সঙ্গে বাদানুবাদের কারণে বাংলাদেশের পেসার তানজিম হাসান সাকিবকে ম্যাচ ফির ১৫ ভাগ জরিমানা করা হয়েছে। গত ১৬ জুন কিংসটাউনে অনুষ্ঠিত নেপালের বিপক্ষে ম্যাচের সময় পৌডেলের সঙ্গে বাদানুবাদে জড়ানোয় তাকে এই জরিমানা করা হয়েছে।

বাদানুবাদের ঘটনা নেপালের ইনিংসের তৃতীয় ওভার শেষে ঘটে। আইসিসি এক বিবৃতিতে জানায়, তানজিম তার বল করার পর আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে নেপালের ব্যাটার রোহিত পৌডেলের দিকে তেড়ে যান এবং অযাচিত শারীরিক ভঙ্গি করেন।' এ সময় দুজনের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময়ও হয়। মাঠের আম্পায়ার স্যাম নোগাস্কির মধ্যস্থতায় পরিস্থিতি শান্ত হয়। তিনি দুইজনকে আলাদা করে দেন। আম্পায়াররা এ সময় বাংলাদেশের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্তর সঙ্গেও কথা বলেন।

খেলোয়াড় ও খেলোয়াড়দের সাপোর্ট স্টাফদের জন্য আইসিসির আচরণবিধির ২.১২ ধারা ভেঙেছেন তানজিম। সেখানে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক ম্যাচে খেলোয়াড়, সাপোর্ট স্টাফ, আম্পায়ার, ম্যাচ রেফারি কিংবা অন্য কারো (দর্শক) প্রতি অযাচিত শারীরিক ভঙ্গি দেখালে তিনি দোষী সাব্যস্ত হবেন।

আর্থিক জরিমানার পাশাপাশি তানজিমের ডিসিপ্লিনারি রেকর্ডে ১টি ডিমেরিট পয়েন্টও যোগ করা হয়েছে। গত ২৪ মাসের মধ্যে তানজিম এমন ঘটনা প্রথম ঘটালেন। একজন খেলোয়াড় যখন ২৪ মাসের মধ্যে নূন্যতম ৪টি ডিমেরিট পয়েন্ট পান তখন তা সানপেনশন পয়েন্টে রূপান্তরিত হয় এবং খেলোয়াড়টি নিষিদ্ধ হয়। দুইটি সাসপেনশন পয়েন্ট পেলে একটি টেস্ট বা দুটি ওয়ানডে বা দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নিষিদ্ধ হয়।

তানজিম শাস্তি মেনে নেওয়ায় কোনো শুনানির প্রয়োজন পড়েনি। নেপালের অধিনায়ক ম্যাচ শেষে জানিয়েছিলেন, আমাদের মধ্যে তেমন কিছু ঘটেনি। সে আমার কাছে এসে এবং আমাকে বল মারতে বলে। আমি তাকে যেতে বলি এবং বল করতে বলি। আর কিছুই নয়।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়