শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৩ এপ্রিল, ২০২৪, ০২:৪৪ রাত
আপডেট : ০৩ এপ্রিল, ২০২৪, ০২:৪৪ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

আসল রাজনৈতিক সংস্কৃতি থাকে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে 

মাসকাওয়াথ আহসান

মাসকাওয়াথ আহসান: তুরস্কে রেসিপ তাইয়েপ এরদোয়ান দীর্ঘকাল ক্ষমতায় রয়েছেন। কিন্তু স্থানীয় সরকার পর্যায়ে তার দলের বিপর্যয় অব্যাহত রয়েছে। ইস্তাম্বুলের মেয়র একরাম বিরোধী দলের প্রতিশ্রুতিশীল নেতা। তিনি ২০১৯ সালের নির্বাচনে জিতেছিলেন। সম্প্রতি আবার তিনি জিতলেন। ইস্তাম্বুলের মানুষ ঠিকই ব্যালটে জবাব দিয়ে দিয়েছে এরদোয়ানকে। রাজধানী আংকারাতেও জিতেছে বিরোধী দল। যেখানেই সচেতন ভোটার সেখানেই এরদোয়ানের দলের ভরাডুবি। নেহাত গ্রামাঞ্চলে উগ্রজাতীয়তাবাদের বস্তাপচা শ্লোগানের জোরে এরদোয়ান এখনো টিকে আছেন। ভাড়ুয়া পুলিশ-প্রশাসন নেই যে, ভোট কেন্দ্র দখল করে ও বিরোধী নেতা কর্মীদের জেলে ভরে ‘আমি আর ডামি’ জিতিয়ে আনবে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে।

তুরস্কের যে সক্রিয় বাম আদর্শের নেতা-কর্মীরা রয়েছেন, তারা দুচোখে দেখতে পারেন না এরদোয়ানকে। ফলে যে লোকেরা বলে, এরদোয়ানের বিকল্প নেই, তারা তুর্কী সমাজে পশ্চাদপদ সমাজ হিসেবেই বিবেচিত। এটাই গণতন্ত্র। এইভাবে ইস্তাম্বুল ও আংকারার মেট্রোপলিটান মন গণতান্ত্রিক মূল্যবোধকে ধারণ করে। আর বোকার স্বর্গে মাথার খুলি ঘরে থুয়ে এ ওর গায়ে ঠেস দিয়ে যে রাজনীতি সচেতনতার গপ্পো ছাড়েন মেট্রো-রুরাল ইন্টেলিজেনশিয়া, ওটা পাটগাঁতির আমব্রেলা ইঞ্জিনিয়ারদের চৌর্য্যবৃত্তির ছল। আসল রাজনৈতিক সংস্কৃতি থাকে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে, নির্বিঘ্ন ভোট দেয়ার পরিবেশে, জনপ্রতিনিধি নির্বাচনের স্বাধীনতার মাঝে। আর ভোটে হেরে মহাপরাক্রমশালী সরকারি দলের পরাজয় মেনে নেবার আধুনিক মানসে। ১-৪-২৪। ফেসবুক থেকে 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়