শিরোনাম
◈ সৌদিতে কোরবানি ঈদের সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা ◈ শ্রম আইন লঙ্ঘনের সাজাপ্রাপ্ত মামলায় স্থায়ী জামিন চাইবেন ড. ইউনূস ◈ ছুটি শেষে ঢাকায় ফিরছে কর্মজীবী মানুষ ◈ স্বাস্থ্যখাতে নতুন অশনি সংকেত অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্ট্যান্স: স্বাস্থ্যমন্ত্রী  ◈ কৃষি খাতে ১০ শতাংশ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যে তিন  বছরে সাড়ে ৩৮ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ ◈ বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৬.১ শতাংশ: এডিবি ◈ বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে বিজিপির ১৪ সদস্য ◈ সিলেটে বিদ্যুৎকেন্দ্রের আগুন নিয়ন্ত্রণে, ৭০ হাজার গ্রাহক বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন ◈ ৬০ লাখ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলার তালিকা প্রকাশ করুন: মির্জা ফখরুলকে ওবায়দুল কাদের ◈ পাল্টা হামলার বিরুদ্ধে ইসরায়েলকে ইরানের কঠোর হুঁশিয়ারি 

প্রকাশিত : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ০২:১৪ দুপুর
আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ০৮:৫১ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

ভারত থেকে ২৬৫৬ মেগাওয়াট তাপ বিদ্যুৎ আমদানি করা হচ্ছে: সংসদে বিদ্যুৎপ্রতিমন্ত্রী 

মনিরুল ইসলাম:  [২] বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ জাতীয় সংসদে এ তথ্য জানিয়েছেন। 

[৩] রোববার সকালে জাতীয় সংসদের অধিবেশনে মুহাম্মদ সাইফুল ইসলামের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ তথ্য জানান। এ সময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন।

[৪] প্রতিমন্ত্রী  বলেন, বর্তমানে দেশে ২৩ হাজার ১৫৯ মেগাওয়াট ক্ষমতার ১৪১টি তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র আছে। এছাড়া ভারত থেকে ২ হাজার ৬৫৬ মেগাওয়াট তাপ বিদ্যুৎ আমদানি করা হচ্ছে।

[৫] তিনি বলেন, পরিকল্পনা অনুযায়ী মোট ১১ হাজার ৩০৩ মেগাওয়াট ক্ষমতার ১৮টি তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণাধীন এবং দরপত্র প্রক্রিয়াধীনের বিভিন্ন পর্যায়ে রয়েছে। 

[৬] এসব বিদ্যুৎকেন্দ্র ২০২৪ সাল থেকে ২০২৭ সালের মধ্যে দেশের বিভিন্ন স্থানে যথা- মাতারবাড়ী, গাজীপুর, সৈয়দপুর, ঘোড়াশাল, ময়মনসিংহ, রূপসা, রামপাল, পটুয়াখালী, মেঘনাঘাট, কেরানীগঞ্জ ও চট্টগ্রামে পর্যায়ক্রমে চালু হবে।

[৭] তিনি জানান, এছাড়া মোট ২ হাজার ২২০ মেগাওয়াট ক্ষমতার পাঁচটি তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের লক্ষ্যে দরপত্র প্রক্রিয়া বিভিন্ন পর্যায়ে রয়েছে। এসব বিদ্যুৎকেন্দ্র ২০২৬ থেকে ২০৩০ সালের মধ্যে দেশের বিভিন্ন স্থানে যথা- ফেঞ্চুগঞ্জ, গজারিয়া, মিরসরাই, মেঘনাঘাট ও রাউজানে পর্যায়ক্রমে চালু হবে। 

[৮] অপর সদস্য জান্নাত আরা হেনরীর এক প্রশ্নের জবাবে নসরুল হামিদ বলেন,  বিভিন্ন ক্ষমতার সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন কর হয়েছে, যার সম্মিলিত ক্ষমতা ৯৭১ দশমিক ৭০ মেগাওয়াট। ওই কার্যক্রমের আওতায় এরই মধ্যে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলায় যমুনা নদীর তীরে ৭ দশমিক ৬ মেগাওয়াট পিক ক্ষমতার একটি সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। এরই মধ্যে যা থেকে জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হচ্ছে।

[৯] প্রতিমন্ত্রী  বলেন, বর্তমানে ৮৮ দশমিক ৭৫ মেগাওয়াট পিক ক্ষমতার আরও একটি সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের কাজ চলমান। যার বাস্তবায়ন কাজ চলতি বছরের জুনে শেষ হতে পারে। সম্পাদনা: ইকবাল খান

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়