শিরোনাম
◈ বাংলাদেশি শ্রমিকদের জন্য ভিসা বন্ধ করল আরব আমিরাত ◈ বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সাথে সেনাবাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ ◈ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে নরওয়ের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাত ◈ এ সংঘর্ষ কোনভাবেই কাম্য নয়, দোষীদের বিচারের দাবি করছি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ◈ খেটে খাওয়া মানুষের পাশে দাঁড়াতে দলীয় নেতা-কর্মী ও বিত্তবানদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান ◈ ৬ দিন বন্ধের পর ফের চালু ইন্টারনেট ◈ বিএনপির অসংখ্য নেতাকর্মীর নাশকতার ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার তথ্য মিলেছে: ডিবির হারুন ◈ চার জেলায় কারফিউ চলবে, অন্যগুলোর সিদ্ধান্ত জেলা প্রশাসনের ◈ চট্টগ্রাম এবং বরিশালে স্বল্প পরিসরে যাত্রীবাহী বাস চলাচল শুরু ◈ বুধবার থেকে খোলা থাকবে অফিস আদালত: জনপ্রশাসনমন্ত্রী 

প্রকাশিত : ০৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ১২:৩৮ দুপুর
আপডেট : ০৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ০৪:১৫ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

কন্টেইনারে করে মালয়েশিয়ায়: দেশে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে কিশোর রাতুলকে

কিশোর রাতুল

মাজহারুল ইসলাম : চট্টগ্রাম বন্দর থেকে গত ১২ জানুয়ারি ছেড়ে যাওয়া মার্শাল আইল্যান্ডের পতাকাবাহী ‘এমভি ইন্টিগ্রা’ নামের জাহাজটি মালয়েশিয়ার কেলাং বন্দরে পৌঁছায় ১৭ জানুয়ারি। একইদিন দিবাগত রাতে ওই জাহাজের খালি একটি কন্টেইনার থেকে উদ্ধার করা হয় বাংলাদেশি কিশোর রাতুল ইসলাম ফাহিমকে।

বাংলাদেশি সেই কিশোর রাতুলকে দেশ ফিরিয়ে আনার প্রস্তুতি নিয়েছে সরকার। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে তার ফেসবুক পেজে রাতুল ইসলাম ফাহিমের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন। তাতে দেখা যায়, বাংলাদেশি এক কর্মকর্তার মোবাইল ফোন থেকে ভিডিও কলে রাতুল তার বাবার সঙ্গে কথা বলছেন। শুরুতে রাতুল বলছে, সে ভালো আছে। দেশে চলে আসবে। পরে আবার বলছে, তার বুকে ব্যথা।  

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ফেসবুক পেজে আরো লিখেছেন, রাতুল ইসলাম ফাহিম দুই মাস আগে কুমিল্লার মনোহরগঞ্জের বাড়ি থেকে হারিয়ে গিয়েছিল। তার কিছু অসুস্থতা আছে। চট্টগ্রাম থেকে পৌঁছে গিয়েছিল মালয়েশিয়ায়। চিকিৎসা নিয়ে রাকুল এখন কিছুটা সুস্থ। আমাদের হাইকমিশন থেকে সকল প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে, তাকে তার পরিবারের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য।

রাতুলের পরিবার ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা জানান, ওই কিশোরের নাম মো. রাতুল ইসলাম ফাহিম (১৪)। সে কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার ঝলম দক্ষিণ ইউনিয়নের সাতপুকুরিয়া গ্রামের মো. দিনমজুর ফারুক মিয়া ও রোকেয়া বেগম দম্পতির ছেলে। তিন ছেলের মধ্যে রাতুল সবার বড়। সে কিছুটা শারীরিক ও মানসিক প্রতিবন্ধী। দুই মাস আট দিন আগে রাতুল বাড়ি থেকে ‘নিরুদ্দেশ’ হয়। তবে কীভাবে সে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে জাহাজে করে মালয়েশিয়ার পেনাং বন্দরে পৌঁছেছে সে বিষয়ে পরিবারের সদস্যরা কিছুই বলতে পারেনি।

এদিকে, কন্টেইনার থেকে বাংলাদেশি কিশোর রাতুলকে উদ্ধারের ভিডিও মালয়েশিয়ায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচার হয়। তাতে দেখা যায়, কিশোরটি বাংলায় কথা বলছে। সেখানে বাংলাভাষী এক ব্যক্তি তাকে নাম জিজ্ঞেস করলে, সে জানায় তার নাম ‘ফাহিম’।

ওই সময় মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাইফুদ্দিন নাসুশে ইসমাইল জানান, প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, ছেলেটি কন্টেইনারে ঢোকার পর ঘুমিয়ে পড়েছিল। পরে সে এখানে এসে পৌঁছায়। সে মানবপাচার চক্রের শিকার নয়।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়