শিরোনাম
◈ শেষ বলের রোমাঞ্চে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কাছে খুলনার হার ◈ ভারতে একদিনে ৩ যুদ্ধবিমান বিধ্বস্ত, পাইলট নিহত ◈ ৮৫ বছর পর বন্ধ হচ্ছে বিবিসি আরবি রেডিও সম্প্রচার ◈ ভারত গরু না দিলেই বরং আমরা কৃতজ্ঞ থাকব: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ◈ বাংলাদেশকে নিয়ে প্রথম লক্ষ্য সেট করেছেন শেখ হাসিনা: আইনমন্ত্রী  ◈ বাংলাদেশিকে মারধর, কুয়েত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা গ্রেপ্তার ◈ অবিলম্বে পদত্যাগ করুন, পালাবার পথ পাবেন না: মির্জা ফখরুল ◈ শান্তিরক্ষা মিশনে যাচ্ছেন ৪৬০ পুলিশ কর্মকর্তা ◈ নিউ ইয়র্কে ২৮ মিনিট ধরে কৃষ্ণাঙ্গকে পিটিয়ে হত্যা, ভিডিও ভাইরাল ◈ বিএনপির সঙ্গে আমরা খেলে জিততে চাই: তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত : ২৫ জানুয়ারী, ২০২৩, ০৮:৫০ রাত
আপডেট : ২৬ জানুয়ারী, ২০২৩, ০১:৫৬ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

দক্ষিণ কোরিয়া ও বাংলাদেশের বাণিজ্যে রেকর্ড

কূটনৈতিক প্রতিবেদক: দক্ষিণ কোরিয়া ও বাংলাদেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ ২০২২ সালে ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ছাড়িয়ে আরেকটি রেকর্ড গড়েছে। ২০২২ সালে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ ৩.০৩৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রেকর্ড করা হয়েছে, যা ২০২১ সালের তুলনায় ৩৮.৭১% বেড়েছে। ২০২১ সালে য ছিল ২.১৮৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

বুধবার ঢাকায় কোরিয়ান দূতাবাস কোরিয়া ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড অ্যাসোসিয়েশনের পরিসংখ্যানের সূত্র ধরে এ তথ্য জানায়। বাংলাদেশে নিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত লি জ্যাং-কিউন বলেন, ২০২৩ সাল কোরিয়া ও বাংলাদেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ তমবার্ষিকী যা কোভিড-১৯ মহামারী এবং রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধসত্বেও বৈশ্বিক অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জগুলি কাটিয়ে দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যে গুরুত্বপূর্ণ মোড় নিয়ে আসবে। 

তিনি আশা প্রকাশ করেন যে ব্যবসায়িক খাত বাংলাদেশের সঙ্গে কোরিয়ার অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য নীতির সুবিধা নেবে। যা ২০০৮ সাল থেকে বাংলাদেশের পণ্যের ৯৫% কোরিয়ার বাজারে শুল্ক ও কোটামুক্ত প্রবেশাধিকার প্রদান করে। কোরিয়ার নন-ট্রেডিশনাল বাজারে রপ্তানিতে বাংলাদেশ সরকার থেকে অন্তত ৪% নগদ প্রণোদনার সুবিধা থাকে।

কোরিয়া ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড অ্যাসোসিয়েশনের পরিসংখ্যানের তথ্য মতে, কোরিয়ায় বাংলাদেশের রপ্তানি ২২.৯% বেড়েছে যা এখন ৬৭৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। ২০২১ সালে যা ছিল ৫৫২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। কোরিয়ার রপ্তানি ২০২১ সালে ১.৬৩৬ বিলিয়ন থেকে বেড়ে ২০২২ সালে ২.৩৫৭ বিলিয়ন হয়েছে, অর্থাৎ ৪৪.১% বেড়েছে। কোরিয়ায় বাংলাদেশের রপ্তানি ক্রমাগত বৃদ্ধিপাচ্ছে, এটি ২০০৭ সালে প্রথমবারের মতো ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অতিক্রম করেছিল এবং ২০১১ সালে ২০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং ২০১৩ সালে ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে পৌঁছেছিল। তার পর প্রায় একদশক ধরে এটি স্থবির ছিল এবং ২০২০ সালে যা ২.৯% সঙ্কুচিত হয়েছিল। 

কোভিড-১৯ মহামারীর বিরূপ প্রভাবের কারণে ৩৯৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার নেমেছিল। তবে, ২০২১ সাল ঘুরে দাড়ানোর সাক্ষী ছিল যা ৫৫২ মিলিয়নের একটি বড় অর্জন প্রত্যক্ষ করেছে যার উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধির পরিমান বছওে ছিল ৪০.৪% এবং ২২.৯ বৃদ্ধির সঙ্গে ২০২২ সালে ৬৭৮ মিলিয়নের আরেকটি রেকর্ড করেছে।

কোরিয়াতে বাংলাদেশের প্রধান রপ্তানি আইটেমের মধ্যে রয়েছে, রেডিমেইড গার্মেন্টস, খেলাধুলা ও অবকাশ যাপনের সামগ্রী, ব্রোঞ্জস্ক্র্যাপ ইত্যাদি। রেডিমেইড গার্মেন্ট যা কোরিয়ায় মোট রপ্তানির ৮৩.২% যা ২০২২ সালে মোট ৫৩৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার রেকর্ড করেছে। যা বছরে ২৫.৮% বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়া কাগজপণ্য এবং খাবারে আইটেম আকাশ ছোঁয়া ১৬৮.৬% এবং ১৬৫% বৃদ্ধি পেয়েছে। কাগজের পণ্য এবং খাবারে আইটেম যথাক্রমে ৩.৬ ও ৩.১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বৃদ্ধি পেয়েছে। ব্রোঞ্জস্ক্র্যাপের রপ্তানি ৪১.৮% বেড়ে ১৭.৭৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার হয়েছে। সম্পাদনা: এল আর বাদল

টিআই/এসবি২

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়