শিরোনাম
◈ ঐক্যবদ্ধ হয়ে গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করুন, স্বৈরাচার পতন দিবসে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান ◈ মোহাম্মদ এ আরাফাতের নির্বাচনী কার্যালয়ে ককটেল হামলা, আহত এক ◈ জাতীয় পার্টির সঙ্গে আলোচনা করে হবে আসন ভাগাভাগি: আমু ◈ ৩৩ ওসির বদলির তালিকা নির্বাচন কমিশনে, ডিএমপিতে রাখার প্রস্তাব ◈ সমুদ্রবন্দরে তিন নম্বর সতর্কতা সংকেত ◈ জামিনে মুক্তি পেলেন বিএনপি নেতা দুলু ◈ ইসির নিবন্ধন পাচ্ছে আরো ২৯ পর্যবেক্ষক সংস্থা ◈ সৌদি বিনিয়োগ বিষয়ক উপ-মন্ত্রীসহ ৩১ সদস্যের প্রতিনিধি দল ঢাকায় ◈ দলীয় প্রার্থীরা আচরণবিধি লঙ্ঘন করলে ইসির শাস্তি মেনে নেবে আওয়ামী লীগ: ওবায়দুল কাদের    ◈ আদালত-বিচারকদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে আইজিপি ও ডিএমপি কমিশনারকে চিঠি

প্রকাশিত : ২৯ মার্চ, ২০২৩, ০৪:১৭ দুপুর
আপডেট : ২৯ মার্চ, ২০২৩, ০৪:১৭ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

ভারতে স্পীকারের বিরুদ্ধে অনাস্থার উদ্যোগ

রাহুল গান্ধী

সাজ্জাদুল ইসলাম: কংগ্রেস ও অন্য বিরোধী দলগুলো ভারতের লোকসভার স্পীকার ওম বিরলার বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনার চিন্তা করছে। আগামী সপ্তাহে প্রস্তাবটি আনা হতে পারে। রাহুল গান্ধীর লোকসভার সদস্যপদ বাতিল করার পর থেকে ক্ষমতাসীন বিজেপি ও কংগ্রেসের মধ্যে উত্তেজনা ক্রমশ বাড়ছে। ইন্ডিয়া টুডে

কংগ্রেস অভিযোগ করছে যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) গণতন্ত্রকে পদদলিত করছে। বিজেপি এ অভিযোগ খন্ডন করে দিয়ে বলেছে, আইন অনুযায়ী রাহুলের লোকসভার সদস্য পদ হারান রাহুল গান্ধী। কোন ধরণের রাজনৈতিক রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ করা হয়নি।

রাহুলের সদস্যপদ বাতিলের ঘটনায় কয়েকটি বিরোধী দলের নেতারা ভারতের প্রচীনতম রাজনৈতিক দল কংগ্রেসের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন। তারা কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করেছেন। সোমবার বিরোধীদলগুলো ‘কালো প্রতিবাদ’ জানায়। রোববার কংগ্রেস দিল্লীর পুরাণ শহরে লোকতন্ত্র বাঁচাও মিছিল বের করে। পুলিশ কয়েকজন বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশের হাতে আটক কংগ্রেস নেতা হরিশ রাওয়াত বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার বিরোধী দলের ঐক্যে ভীতহয়ে পড়েছে। 

রাহুল গান্ধীকে সমালোচনা করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অশ্বনি বিষ্ণু বলেন,  রাহুলের ‘গোয়ার্তুমির’ জন্য তাকে লোকসভা অযোগ্য ঘোষণা করেছে। তিনি আরো বলেন,রাহুল আ মনে করেন যে, বিশেষ একটি পরিবারে জন্মগ্রহণের কারনে জন্মগতভাবে তিনি দেশ শাসনের অধিকারী।

বিরোধী দলের হৈচৈ ফলে বুধবার  সকালে লোকসভার অধিবেশন বিকেল ২টা পর্যন্তু মুলতবি হয়ে যায়। বিরোধী দলীঢ এমপিরা আদানি গ্রুপের বিরুদ্ধে অভিযোগের জেপিসি তদন্ত দাবিতে শ্লোগান দিলে অধিবেশন মুলতবি হয়ে যায়। কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খড়গে বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদি নিজেই দুর্নীতিগ্রস্থ এবং যারা দেশের সম্পদ লুট করছে তাদের ব্যাপারে কোন তদন্ত করছেন না।

তৃণমূল কংগ্রেস (টিএমসি) রাহুলের প্রতি সমর্থন জানিয়ে লোকসভার আম্বেদকর মুর্তির কাছে আজ সকালে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। তৃণমুলের দুদিনব্যাপীর ধর্নার অংশ হিসেবে এ বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়। কেন্দ্রীয় সরকারের গণবিরোধী নীতির প্রতিবাদে এ ধর্না পালন করা হয়। সম্পাদনা: জাফর খান

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়