শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৫ মার্চ, ২০২৪, ০২:০২ দুপুর
আপডেট : ০৫ মার্চ, ২০২৪, ০২:৫০ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

৫ মার্চ সুপার টুয়েসডে  মার্কিন প্রেসিডেন্ট  নির্বাচনে ডেমোক্রেট ও  রিপাবলিকান প্রার্থী কে হচ্ছেন তা চূড়ান্ত হবে 

সাজ্জাদুল ইসলাম : [২] এদিন একসঙ্গে ১৫টি মার্কিন অঙ্গরাজ্য ও একটি অঞ্চলে ওই দুই দলের ভোট ও ককাস অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সূত্র : বিবিসি, সিএনএন

[৩] রিপাবলিকান দল থেকে মনোনয়ন চূড়ান্ত করতে যেকোনো প্রার্থীকে ২ হাজার ৪২৯ জন প্রতিনিধির মধ্যে ১ হাজার ২১৫ জনের সমর্থন প্রয়োজন হয়। সুপার টুুইসডের ভোটাভুটিতে ৮৭৪ জনের সমর্থন নিশ্চিত হবে।

[৪] অন্যদিকে এদিন ৩ হাজার ৯৭৯ ডেমোক্রেট প্রতিনিধির মধ্যে ১ হাজার ৪৩৯ জন তাদের সমর্থন জানাবেন। অবশ্য ডেমোক্রেটদের দলীয় বাছাইয়ে বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বিপরীতে তেমন কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী নেই। এ দিন আলাবামা, আলাস্কা, আরকানসাস, ক্যালিফোর্নিয়া, কলোরাডো, মেইন, ম্যাসাচুসেটস, মিনেসোটা, ওকলাহোমা, টেনেসি, টেক্সাস, উটাহ, নর্থ ক্যারোলাইনা, ভারমন্ট ও ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যে এবং আমেরিকান টেরিটরি সামোয়াতেও ভোট হবে।

[৫] মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়তে হলে প্রার্থীকে আগে নিজ দলে নির্বাচন করতে হয়। জিতে আসতে হয় অঙ্গরাজ্যগুলোর প্রাথমিক বাছাই আর ককাসে। সেখানে রাজনৈতিক দলগুলোর নিবন্ধিত ভোটাররা নিজ দলের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দেন। এরপরই দলের সম্মেলনে বিজয়ী প্রার্থী দলের মনোনয়ন পান।

[৬] সুপার টুইসডেতে একসঙ্গে ভোট দেন লাখো নিবন্ধিত ভোটার। অর্থাৎ এদিন যিনি সবচেয়ে বেশি প্রাথমিক বাছাইয়ে জয় পাবেন, দলীয় মনোনয়নে তিনিই প্রার্থী হবে, এটা প্রায় নিশ্চিত। একই সঙ্গে বিশেষ এই দিনে মার্কিন পার্লামেন্টের দুই কক্ষের (প্রতিনিধি পরিষদ ও সিনেট) সম্ভাব্য প্রার্থীদেরও প্রাথমিক বাছাইয়ে ভোটের মুখোমুখি হতে হয়। এবারের নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক দল থেকে তেমন বিরোধিতার মুখোমুখি হতে হচ্ছে না বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে। তাই দলীয় প্রার্থী হিসেবে বাইডেন নভেম্বরের নির্বাচনে লড়ছেন, সেটা প্রায় নিশ্চিত।

[৭] অন্যদিকে রিপাবলিকান দলের প্রার্থী হওয়ার লড়াইয়ে সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পথে প্রধান চ্যালেঞ্জ নিক্কি হ্যালি। ট্রাম্প-হ্যালির এ লড়াইয়ে সুপার টুইসডে স্পষ্ট ব্যবধান গড়ে দেবে। সম্পাদনা: ইকবাল খান

এসআই/আইকে/এইচএ

 

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়