শিরোনাম
◈ আজ বিদেশি কূটনীতিকরা ধ্বংসযজ্ঞ পরিদর্শনে যাবেন ◈ চলমান সংকটে রাজশাহীতে কৃষিখাতে দিনে ২০ কোটি টাকার ক্ষতি ◈ কারফিউ শিথিল সময়ে চলবে দূরপাল্লার বাস ◈ প্রাণহানি ও ধ্বংসাত্মক ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করেছে সম্পাদক পরিষদ ও নোয়াব ◈ ড. ইউনূস রাষ্ট্রদ্রোহী কাজ করেছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ◈ বাংলাদেশের সহিংসতা বন্ধে বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রতি জরুরি আহ্বান জানিয়েছেন ড. ইউনূস ◈ নরসিংদী কারাগার থেকে পালানো ১৩৬ কয়েদির আত্মসমর্পণ ◈ কতজন শিক্ষার্থী মারা গেছেন, জানতে সময় লাগবে: শিক্ষামন্ত্রী ◈ বাংলাদেশি শ্রমিকদের জন্য ভিসা বন্ধ করল আরব আমিরাত ◈ বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সাথে সেনাবাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

প্রকাশিত : ০৮ জুন, ২০২২, ০৫:৩৫ বিকাল
আপডেট : ০৮ জুন, ২০২২, ০৮:০২ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

নিউরোসায়েন্সেস হাসপাতালে ডিপ ব্রেইন স্টিমুলেশন সার্জারি সম্পন্ন

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস হাসপাতাল

শাহীন খন্দকার: মুভমেন্ট ডিজঅর্ডার চিকিৎসায় দেশে তিনটি সফল ডিপ ব্রেইন স্টিমুলেশন (ডিবিএস) সার্জারি সম্পন্ন হয়েছে। মঙ্গলবার (৭ জুন) ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস (এনআইএনএস) থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ কথা জানানো হয়। এতে বলা হয়, ঢাকায় দুই দিনে তিনটি সফল অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। অস্ত্রোপচারগুলো গড়ে ৪৫ বছর বয়সী তিনজন রোগীর করা হয়েছে, এদের মধ্যে দুইজন পারকিনসন্স রোগে ও আরেকজন সাধারণ ডাইস্টোনিয়ায় আক্রান্ত।  

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেসের (এনআইএনএস) নিউরোসার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. জালাল উদ্দিন মোহাম্মদ রুমি এবং ভারতের গুরুগ্রাম, দিল্লী-এনসিআরে অবস্থিত মেদান্তা ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সের নিউরোসার্জারি বিভাগের সহযোগী পরিচালক ডা. অনির্বাণ দ্বীপ ব্যানার্জী, এই দুইজন চিকিৎসক মুলত অস্ত্রোপচারগুলো সম্পূর্ণ করেন। তাদের সহযোগিতায় ছিলেন ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেসের (এনআইএনএস) নিউরোলজিস্ট চিকিৎসক টিম।

এনআইএনএসের নিউরোসার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. জালাল উদ্দিন মোহাম্মদ রুমি এ বিষয়ে বলেন, এটা অত্যন্ত আনন্দের বিষয়, এ থেরাপিগুলো এখন বাংলাদেশে সহজলভ্য এবং রোগীদের চিকিৎসার জন্য আর বিদেশে যেতে হবে না। আমরা ভবিষ্যতে এই ধরনের অত্যাধুনিক চিকিৎসার মাধ্যমে আরও বেশি রোগীদের সেবা দেবার আশাবাদী।  

মেদান্তা ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সের নিউরোসার্জারি বিভাগের সহযোগী পরিচালক ডা. অনির্বাণ দ্বীপ ব্যানার্জী বলেন, ডিবিএস বিভিন্ন ধরনের দীর্ঘস্থায়ী স্নায়বিক জটিলতার চিকিৎসায় উল্লেখযোগ্য ভুমিকা রাখছে। এই পদ্ধতিটি পারকিনসন্স রোগ ও ডাইস্টোনিয়ার মতো নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন রোগগুলোর সঙ্গে সম্পর্কিত লক্ষণগুলোর উপশমে সাহায্য করে।

পারকিনসন্স হলো চলার সময় ভারসাম্য রক্ষা সংক্রান্ত এক ধরনের রোগ, যা কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রকে প্রভাবিত করে। এই রোগে আক্রান্তদের মধ্যে কম্পন, ধীরগতিতে নড়াচড়া, অনমনীয় পেশি ও হাঁটার অসুবিধার মতো উপসর্গ দেখা দেয়। তিনি আরো বলেন, মস্তিষ্কের কিছু গুরুত্বপূর্ণ স্নায়ু কোষের ক্রমাগত মৃত্যু ও  অবক্ষয়ের কারণে এই রোগটি হয়। ডাইস্টোনিয়া এক ধরনের মুভমেন্ট ডিজঅর্ডার। এতে রোগীর পেশিগুলো অনিচ্ছাকৃতভাবে সঙ্কুচিত হয়ে যায়, এর ফলে পুনরাবৃত্তিমুলক নড়াচড়া হয়। এই রোগ শরীরের একটি একক অংশ (ফোকাল ডাইস্টোনিয়া), বা শরীরের দুই বা ততোধিক অংশ (সেগমেন্টাল ডাইস্টোনিয়া), বা সমগ্র শরীরকে (সাধারণ ডাইস্টোনিয়া) প্রভাবিত করতে পারে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়