শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০১:৩৬ দুপুর
আপডেট : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৩:২৯ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

জাতীয় পার্টির নেতাকে কুপিয়ে পা বিচ্ছিন্ন

জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক মো. শফিকুল ইসলাম

জুলফিকার আমীন : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় পূর্ব বিরোধের জের শফিকুল ইসলাম (৪০) নামে এক জাতীয় পার্টি (এরশাদ)‘র নেতাকে কুপিয়ে বাম পা বিচ্ছিন্ন করেছে  দুর্বৃত্তরা। এ সময় এলোপাথাড়ি কোপানোর কারণে তার ভুঁড়ি বের হয়ে যায় এবং শরীরের বিভিন্ন অংশে মারাত্মক জখম হয়। ২৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে উপজেলার মাঝেরপুল ফরাজী বাড়ির সামনে এ নৃশংস ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা আহত শফিকুলকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পুলিশ হাসপাতাল ও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। শফিকুল তুষখালী ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও তুষখালী গ্রামের মো. আইয়ূব আলীর ছেলে। এ ঘটনায় থানা পুলিশ তুষখালী ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান হাওলাদারের ছোট ভাই মো. নাসির হাওলাদারকে আটক করেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বরিশাল শেবাচিম হাসপাতাল থেকে ঢাকা প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জমি, ব্যবসা সংক্রান্ত ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান হাওলাদার, তার ছোট ভাই নাসির হাওলাদার, ছেলে শামীম হাওলাদার ও সাবেক ইউপি সদস্য সগীর হোসেন হাওলাদার সহ বিভিন্ন জনের সাথে শফিকুলের বিরোধ চলে আসছিলো। স্থানীয় বাসিন্দা মুসা শরীফের সাথে চলমান একটি মামলায় শফিকুল আদালতে হাজিরা দিতে বৃহস্পতিবার সকালে মোটরসাইকেল যোগে তুষখালী থেকে মঠবাড়িয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। মাঝেরপুলের সন্নিকটে ফরাজি বাড়ির সামনে কালভার্ট এর উপরে আসা মাত্রই একটি মহেন্দ্র গাড়ি শফিকুলের গতিরোধ করে। এ সময় শফিকুল মোটরসাইকেল থেকে নেমে পিছনের দিকে দৌড় দিলে হামলাকারীরা মাহেন্দ্র থেকে নেমে তাকে ধাওয়া করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে বাম পা বিচ্ছিন্ন করে। এ সময়  এলোপাতাড়ি কোপানোর কারণে শফিকুলের পেটের ভুড়ি বেড়িয়ে যায় এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক জখম হয়।

পিরোজপুর জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মঠবাড়িয়া সার্কেল) মোঃ ইব্রাহিম জানান, হাসপাতাল ও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে মামলার প্রস্তুতি চলছে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মুহা. নূরুল ইসলাম বাদল বলেন, এঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তুষখালী ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান হাওলাদারের ছোট ভাই মো. নাসির হাওলাদারকে আটক করেছে।

এ ঘটনায় স্থানীয় সাংসদ সরকারি হিসাব সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও জাতীয় পার্টির (এরশাদ) কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট ডাঃ মোঃ রুস্তুম আলী ফরাজি তীব্র নিন্দা জানিয়ে ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবী জানান। সম্পাদনা: আল আমিন 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়