প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ইভানার মৃত্যু: তদন্ত প্রতিবেদন ১৫ ডিসেম্বর

খালিদ আহমেদ: [২] রোববার মামলার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার জন্য তারিখ ছিল। এদিন শাহবাগ থানা পুলিশ প্রতিবেদন জমা দিতে পারেনি। এ জন্য ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আবুবকর ছিদ্দিক প্রতিবেদনটি জমার নতুন তারিখ ঠিক করেন।

[৩] গত ১৫ সেপ্টেম্বর শাহবাগের পরীবাগে শ্বশুরবাড়ি থেকে ইংরেজি মাধ্যম স্কুল স্কলাসটিকার ক্যারিয়ার গাইডেন্স কাউন্সিলর ইভানার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

[৪] ইভানার মৃত্যুর ঘটনায় তার বাবা আমান উল্লাহ চৌধুরী ২৫ সেপ্টেম্বর শাহবাগ থানায় মামলা করেন। মামলায় দুজনকে আসামি করা হয়।

[৫] তারা হলেন ইভানার স্বামী আবদুল্লাহ মাহমুদ হাসান রুম্মান ও ইমপালস মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক অধ্যাপক মুজিবুল হক মোল্লা।

[৬] মামলার অভিযোগে আমানুল্লাহ চৌধুরী মেয়ের মৃত্যুর জন্য ইভানার স্বামীর অন্য সম্পর্কে জড়িয়ে পড়াকে দায়ী করেছেন। পাশাপাশি আত্মহত্যায় প্ররোচিত করে এমন ওষুধ দেয়ায় চিকিৎসককে আসামি করা হয়েছে।

 

সর্বাধিক পঠিত