প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কাশ্মীরে পাকিস্তানের গণহত্যার ‘কালো দিবসে’ বাংলাদেশে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন

নিজস্ব প্রতিবেদক: [২] ১৯৪৭ সালে জম্মু ও কাশ্মীরে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর গণহত্যা স্মরণে ‘কালো দিবস’ পালন করেছে বাংলাদেশের বিভিন্ন সংগঠন। পাকিস্তান সেনাবাহিনী কাশ্মীরের ‘অপারেশন গুলমার্গ’ এর আদলে ১৯৭১ সালে ঢাকায় ‘অপারেশন সার্চলাইট’ পরিচালনা করে জগণ্য গণহত্যা চালিয়েছিল। এ কারণে এই দিবসের তাৎপর্য বাংলাদেশের জন্য গুরুত্ব অপরিসীম।

[৩] শুক্রবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) নসরুল হামিদ মিলনায়নে ‘মুক্তচিন্তা ও যুক্তিবাদ চর্চা ফোরাম’ সেমিনারের আয়োজন করেন। ‘অপারেশন গুলমার্গ এবং অপারেশন সার্চলাইট : পাকিস্তানের পরিকল্পিত গণহত্যা’ শীর্ষক এই সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ডেইলি অবজারভারের সম্পাদক ইকবাল সোবহান চৌধুরী। ডিআরইউ এর সামনে কাশ্মীরের গণহত্যার নিন্দা করে ব্যানার ও প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করা হয়।

[৪] দিবসটির ভয়াবহতা তুলে ধরতে এদিন সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ওপেন ডায়ালগ বাংলাদেশ (ওডিবি) আয়োজনে পথনাটক ‘ অপারেশন গুলমার্গ’ মঞ্চস্থ হয়। এ ছাড়া পাকিস্তান হাইকমিশনের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে সংগঠনটি।

[৫] ঢাকার বাইরে খুলনায় বাংলাদেশ সোশ্যাল অ্যাক্টিভিস্টস ফোরাম (বিএসএএফ), রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘কালো দিবস’ উপলক্ষে মানববন্ধনের আয়োজন করে। কর্মসূচী শেষে অংশগ্রহণকারীরা একটি মোটরসাইকেল র‌্যালী করে শহরের বিভিন্ন স্থান পদক্ষিণ করে।

[৬] স্বাধীনতা সংগ্রাম পরিষদ নামের আরেকটি সংগঠন ঢাকায় শুক্রবার সকালে পাকিস্তান হাইকমিশনের সামনে কাশ্মীরে পাকিস্তানের গণহত্যার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করে। এ সময় বিক্ষোভকারীরা বাংলাদেশে পাকিস্তানের গণহত্যা এবং বঙ্গবন্ধুর হত্যা এবং আফগানিস্তানে পাক-সমর্থিত তালেবানদের অত্যাচারের প্রতিবাদ জানান এবং পাকিস্তানকে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানান।

[৭] দিবসটি উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা মঞ্চ শাহবাগের জাতীয় জাদুঘরের সামনে আলোকচিত্র প্রদর্শনী, আলোচনা সভা এবং তথ্যচিত্র প্রদর্শনী করে। শিক্ষার্থী, অধ্যাপক এবং বিভিন্ন পেশার মানুষ এতে অংশ নেয়। বাংলাদেশে অধ্যয়নরত প্রায় ২০ জন কাশ্মীরি মেডিকেল শিক্ষার্থী কালো ব্যাজ পরিধান পরে এবং পাকিস্তানের গণহত্যার প্রতিবাদ জানায়।

[৮] এছাড়াও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মানবাধিকার সংস্থা এবং উদীচী মানববন্ধন করে। খাগড়াছড়ি, রাঙ্গামাটি, বান্দরবান এবং চট্টগ্রামের সচেতন মানুষের মধ্যে কালো দিবসের কারণ এবং পাকিস্তানের অতীত কুকর্ম তুলে ধরে প্রায় ৫০০০ হ্যান্ডবিল বিতরণ করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত