প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায়-বাগেরহাটের শরণখোলায় শিঘ্রই চালু হতে যাচ্ছে ফেরী সার্ভিস

জুলফিকার আমীন: [২] অপেক্ষার পালা শেষ। শিঘ্রই চালু হতে যাচ্ছে উপকূলীয় এলাকার বলেশ্বর নদীতে বড়মাছুয়া-রায়েন্দা ফেরী সার্ভিস। দুই জেলা পিরোজপুরের সঙ্গে বাগেরহাট জেলার নদী পথে যোগাযোগের সহজ মাধ্যম এটি। দু‘পাড়ে ফেরীর জন্য পল্টুন ও জেটি নির্মাণের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়। যে কোনো সময় আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন হবে দুই জেলার সেতুবন্ধন ফেরীর শুভ উদ্বোধন। এ সেতুবন্ধনের জন্য যুগ-যুগ ধরে অপেক্ষায় ছিলো দু‘পাড়ের মানুষ।

[৩] এদিকে পিরোজপুর জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা সরেজমিনে মঠবাড়িয়া অংশের জেটি নির্মাণ ও সার্বিক কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে খোঁজ খরব নিয়েছেন।

[৪] জানা গেছে, পিরোজপুর-৩ (মঠবাড়িয়া) আসনের সংসদ সদস্য ও সরকারি হিসাব সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ডাঃ মোঃ রুস্তুম আলী ফরাজি এবং বাগেরহাট-৪ (শরণখোলা-মোড়েলগঞ্জ) আসনের প্রয়াত সাংসদ ডাঃ মোজাম্মেল হক, বর্তমান সাংসদ এডভোকেট আমিরুল আলম মিলন ও সাবেক রেল সচিব মোফাজ্জেল হক মন্টুর ঐক্যান্তিক প্রচেষ্টায় দেশের দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের অন্য রকম গুরুত্বপূর্ণ এ ফেরী সার্ভিস অনুমোদন পায়।

[৫] গত ৬ জানুয়ারী ২০২১ রায়েন্দার ঘাট থেকে পাঁচরাস্তা পর্যন্ত টেন্ডার আহবান করছে বাগেরহাট সড়ক বিভাগ। যার সম্ভব্য ব্যায় ৩ কোটি ৬ লাখ টাকার দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে। আধা কিলোমিটার মূল সড়ক পাঁকা হবে ১৮ ফুট চওড়া এবং দুই পাশে ৩ ফুট করে ফুটপথ হবে।

[৬] এদিকে মঠবাড়িয়া বড়মাছুয়া ঘাট সংলগ্ন অংশের ৮৩ লাখ টাকা ব্যয়ে ১৮ ফুট চওড়া ৫‘শ মিটার সড়ক ও পল্টুনের কাজ ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার আবু হানিফ নিশ্চিত করেছেন। এ মাসের শেষের দিকে ফেরী নির্দিষ্ট ঘটে চলে আসবে বলে বাগেরহাট সড়ক ও জনপথ বিভাগ জানিয়েছে। সম্পাদনা: হ্যাপি

সর্বাধিক পঠিত