প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কুমিল্লা প্রাথমিক শিক্ষকদের সুবিধাদি বাতিলের প্রতিবাদে মানববন্ধন

রুবেল মজুমদার: [২] প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয় কর্তৃক জাতীয়করণ হওয়া শিক্ষকদের টাইমস্কেল বাতিল, গৃহিত নির্দেশে ও পদোন্নতি, অর্থ ফেরত নেওয়ার আর্দেশের প্রতিবাদে কুমিল্লায় মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক কল্যাণ সমিতি, কুমিল্লা জেলা শাখা।

[৩] মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে কুমিল্লা টাউনহলের সামনে মানববন্ধনে করেন জেলার ১৭ উপজেলা থেকে আসা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকবৃন্দ। পরে দুপুর ১ টায় জেলার প্রায় সাড়ে ৩ হাজার শিক্ষক নিয়ে কুমিল্লা জেলা শিক্ষা অফিসারের নিকট চার দফা দাবি আদায়ে লক্ষ্য একটি স্মারক লিপি প্রদান করা হয়।

[৪] তাদের চার দফা দাবিগুলো হলো, অর্থ মন্ত্রণালয়ের পরিপত্রটি প্রত্যাহার করা, বেসরকারি ৫০ ভাগ কার্যকর চাকুরিকালের ভিত্তিতে টাইমস্কেল, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের পি.আর.এল, লামগ্র্যান্ড, পেনশন ও আনুতোষিক প্রদান অব্যহত রাখতে হবে (২) এসএমসি কর্তক প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগপ্রাপ্তদের গেজেটে অন্তর্ভূক্ত করা। বিধিমালা ২০১৩ এর বিধি (৩) উপবিধি গ তে বর্ণিত চাকরীকালের ভিত্তিতে শিক্ষকদের জেষ্ঠত্যা,পদোন্নতি প্রদান করতে হবে।

[৫] এসময় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, চট্টগ্রাম বিভাগের সাদারণ সম্পাদক সুবশচন্দ্রদাশ, কুমিল্লা জেলা শাখার সভাপতি মো. হাবিবুর রহমান ভূইয়া, সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন, শিক্ষক নেত্রী ফয়জুন্নেসা সীমা। চট্টগ্রাম জেলা শাখার সভাপতি এসএম ইছহাক, বি-বাড়িয়া জেলা শাখার সভাপতি রফিকুল ইসলাম, চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি আহসান হাবিব সহ প্রমুখ।

[৬] মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়নে অবহেলিত শিক্ষকদের সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ২০১৩ সালের ৯ জানুয়ারি ঐতিহাসিক ঘোষণার মাধ্যমে ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কর্মরত ১ লাখ ৪ হাজার ৭৭২ জন শিক্ষকের চাকুরি জাতীয়করণ করে। তবে গত ২০২০ সালের ১২ আগস্ট অর্থ মন্ত্রণালয় কর্তৃক একটি পরিপত্র জারির মাধ্যমে টাইমস্কেল বাতিল করে গৃহিত অর্থ ফেরত নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়। এছাড়াও জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক শিক্ষকদের জ্যেষ্ঠতা, পদোন্নতি, টাইমস্কেল ও অবসর গ্রহণকারী শিক্ষকদের ৫০ ভাগ বেসরকারি কার্যকর চাকুরীকালে পিআরএল, লামগ্র্যন্ড, পেনশন ও আনুতোষিক প্রদান করা হচ্ছে না। এতে করে হাজার হাজার শিক্ষক পরিবারে চরম হতাশার সৃষ্টি হয়েছে। এ থেকে পরিত্রাণে লক্ষ্যে তারা প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

[৭] কুমিল্লা জেলা শাখার সভাপতি মো. হাবিবুর রহমান ভূইয়া বলেন, আমাদের চার দফা দাবি না মানা হলে আমরা লাগাতার ধর্মঘট ও অনসন অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হবে। আকশ্মিকভাবে বিধিমালার ভূল বাখ্যা আমার কখনো মেনে দিতে পারি না। আমাদের ৫০ হাজার পরিবারের দায়িত্ব কে নিবে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত