প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পোড়াগাওঁ ইউনিয়নে আদিবাসী নারী প্রার্থী হিসেবে বন্দনা চাম্বুগং এর আলোচনা সর্বত্র

তপু সরকার : শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় ১ নং পোড়াগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রথম আদিবাসী নারী চেয়ারম্যান প্রার্থী, পোড়াগাঁও ইউনিয়নের আন্ধারূপাড়া গ্রামের রিপন চিরানের স্ত্রী বন্দনা চাম্বুগং বর্তমানে ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগেরও সভাপতি।

তাঁর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বর্তমান চেয়ারম্যানসহ আরও তিন প্রার্থী। তারা সবাই পুরুষ। পুরুষদের সঙ্গে সমানতালে গনসংযোগ ভোটযুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছেন আদিবাসী নারী বন্দনা চাম্বুগং (৪২)।

সমেসচূড়া গ্রামের শ্রমজীবী মতিউর রহমান বলেন, ‘জীবনে অনেক মানুষরে ভোট দিছি। ভুটের আগে কত প্রতিশ্রুতি দেয়। ভুট শেষ হইলেই সব কথা ভুইলা যায়। একজন আদিবাসী নারীকে বিজয়ী করে নারী নেতৃত্বকে এগিয়ে নিতে আমরা দলমত নির্বিশেষে বন্দনার পাশে আছি।

শনিবার দুপুরে পোড়াগাঁও ইউনিয়নের সমসচুড়া পশ্চিম এবং ধোপাকুড়া তোয়ালকুচি ও বুরুঙ্গাও বাতকুচি এলাকায় গিয়ে দেখা যায় বন্দনার পক্ষে সাধারণ মানুষের এ মনোভাব সবর্ত্র ।

তবে পাহাড়ি-বাঙালি ভোটারদের মন গলাতে তাঁরাও ঘুরে বেড়াচ্ছেন গ্রামে গ্রামে। পাড়ায় ঘরোয়া বৈঠক করে ভোটারদের সমর্থন আদায়ের চেষ্টা করছেন তিনি,একে তো নারী, তার ওপর আদিবাসী।

কিন্তু সকল প্রতিকূলতাকে পেছনে ফেলে এগিয়ে চলেছেন আদিবাসী নারী বন্দনা চাম্বুগং।তিনি বলেন ব্যক্তির চেয়ে দল বড়, দলের চেয়ে দেশ বড় ।

দল যাকে মনোনয়ন দেবে আমি এবং সবাই তাকে ভোট দেবো নির্বাচন ।গতবার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী গারো মানুষদের সম্মানিত করে আমাকে নৌকা প্রতিক দিয়েছিল ।সামান্য কিছু ভোটের ব্যবধানে আমার প্রতিদন্ডি সতন্ত্র প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন ।

আমরা আদিবাসী মানুষ, কোন ঘুর প্যাচ বুঝিনা তারপরও এবার আমি ঈশ্বরের কাছে আশাবাদি নৌকা পেলে আমি বিজয়ী হবো।

নির্বাচনের আরো ২ মাস বাকী থাকলেও প্রচারণায় ভোট প্রার্থনা করে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন প্রার্থীরা। কিন্ত সকল প্রার্থীদের মধ্যে নারী প্রার্থী বন্দনা চাম্বুগং এর আলোচনা সর্বত্র।

বাতকুচি,পলাশীকুড়া ,আন্দারু পাড়া ,বুনার পাড়া,ঢেকিকুড়া গ্রামে বিকেলে গিয়ে দেখা যায়, বন্দনা গণসংযোগ করছেন। এ সময় তিনি বলেন, বর্তমান সরকার নারীর ক্ষমতায়নে বিশ্বাসী। তাই আমার মতো অজপাড়াগাঁয়ের একজন গারো নারীকে পোড়াঁগাও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি বানাইছেন ।

এলাকাবাসী বলেন আওয়ামী লীগের দলীয় কর্মকাণ্ডে সর্বত্র ছুটে চলছেন তিনি স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের সাথে কথা হলে তারা বলেন করোনা ক্রান্তিকাল সময়ে মানুষের পাশে সর্বদাই বন্দনা চাম্বুগং ছিল।

আওয়ামী লীগ এর মনোনয়ন নৌকা প্রতিক পেয়ে নির্বাচন করলে নির্বাচিত হয়ে আমাদের পোড়াগাঁও ইউনিয়নের মানুষে আশা পূরণ হবে।

পূর্ব সমেশ্চুড়া গ্রামের নারী ভোটার ফিরোজা বেগম (৫৫ তিনি বলেন বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে ও একজন উপজাতি নারীকে বিজয়ী করে নারী নেতৃত্বকে এগিয়ে নিতে চাই।

তাকে দলীও মনোনয় দিলে, বিজয়ী করে পোড়াগাঁও ইউনিয়নকে মডেল ইউনিয়ন হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আমরা উপহার দিতে চাই।

 

 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত