প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] স্বামী-স্ত্রী সেজে কাপড়ের দোকানে মোবাইল চুরি, গ্রেপ্তার ৪

রাজু চৌধুরী : [২] চট্টগ্রাম নগরের পাহাড়তলী থানাধীন অলংকার শপিং কমপ্লেক্সে কাপড়ের দোকানে মোবাইল ফোন চুরি এবং সেই চোরাই মোবাইল ক্রয়ের দায়ে দোকানদার সহ তিন জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

[৩] সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) পুলিশ জানায়, স্বামী স্ত্রী পরিচয়ে দুইজন ড্রাইভারকে কল করার নামে দোকানদারের মোবাইল নিয়ে গায়েব হয়ে যাওয়া মো. এসকান্দর প্রকাশ শওকত (২৮) সাজানো স্ত্রী প্রতারক রিনা বেগম (২১) এবং চোরাই মোবাইল ক্রয় বিক্রয়ের দায়ে নগরীর শাহ আমানত সিটি কর্পোরেশন মার্কেটের মোবাইল সার্জারি নামক দোকানের মালিক মিজানুর রহমানসহ আল শাহিন আব্দুল্লাহ রিজভী (১৯) কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

[৪] রবিবার রাতে পৃথক অভিযানে তাদের গ্রেপ্তারের বিষয়টি জানিয়েছেন পাহাড়তলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান।

[৫] গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন: রাউজানের পূর্ব গুজরার মৃত আমির হামজার ছেলে মো. এসকান্দর প্রকাশ শওকত প্রকাশ রাহাদ (২৮) ও একই এলাকার হেলাল চৌধুরীর ছেলে আল শাহিন আব্দুল্লাহ রিজভী, বাঁশখালী খানখাবাদের জাকের আহম্মদের ছেলে মিজানুর রহমান ও সন্দ্বীপের মগদারার বাউলিয়া এলাকার আবুল কালামের মেয়ে রিনা বেগম।

[৬] ওসি মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান আরো জানান, গত ৩ সেপ্টেম্বর রাত সোয়া নয়টার দিকে পাহাড়তলী থানাধীন অলংকার শপিং কমপ্লেক্স মার্কেটের প্যারিস কর্ণার নামক দোকানে স্বামী স্ত্রী পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন রকমের কাপড় পছন্দ করে এসকান্দর ও রিমা। এ সময় তারা সাড়ে ছয় হাজার টাকা মূল্যের কাপড় ক্রয় করেন। কিন্তু স্বামী এসকান্দর তার মানিব্যাগ খুলে পর্যাপ্ত টাকা না থাকায় তার ড্রাইভারকে কল করতে দোকানদারের মোবাইল ফোনটি দেয়ার জন্য অনুরোধ করে। দোকানদার মো. জাবের তার ব্যবহৃত আইফোন ১০ মডেলের ৫০ হাজার টাকা মূল্যের মোবাইল সেটটি তাকে দেয়। এসকান্দর তার পছন্দের কাপড়গুলো প্যাকেট করতে বলে। অপরদিকে স্ত্রী পরিচয়দানকারী রিনা বেগম সেই ফাঁকে দোকানদারের সাথে কথা বলে। একপর্য়ায়ে স্বামী পরিচয় দানকারী দোকানদারের মোবাইল সেটটি নিয়ে চলে যায়। দোকানদার পাহাড়তলী থানা পুলিশকে খবর দিকে পুলিশ তদন্তে নেমে গোয়েন্দা তথ্য ও সিসিটিভি ফুটেজের মাধ্যমে প্রতারক মো. এসকান্দারকে শনাক্ত করে গ্রেপ্তার করা হয়।

ওসি জানান, পরে এসকান্দরের দেয়া তথ্যমতে চোরাই মোবাইল সেটটি কোতোয়ালী থানাধীন শাহ আমানত সিটি কর্পোরেশন মার্কেটের ২য় তলা ‘মোবাইল সার্জারী’ দোকানের মালিক মিজানুর রহমানের নিকট থেকে উদ্ধার করা হয়। মোবাইল সেটটি মিজানুর রহমান মো. এসকান্দর ও আল শাহিন আব্দুল্লাহ রিজভীর (১৯) নিকট থেকে ১০ হাজার টাকায় ক্রয় করেন। পরে মিজানুর রহমান, আল শাহিন আব্দুল্লাহ রিজভী ও রিনা বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত