প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বোয়ালমারী ও আলফাডাঙ্গা ১৬১ টি দুর্গা মন্দিরে প্রতিমা তৈরির কাজ চলছে, ব্যস্ত প্রতিমা শিল্পীরা

সনতচক্রবর্ত্তী: [২] আর মাত্র কয়েক সপ্তাহ পর সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। আর এই দুর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে বিরাজ করছে সাজ সাজ রব। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস দুষ্টের দমন আর শিষ্টের পালনের জন্যই দেবী দুর্গার স্বর্গ থেকে আগমন ঘটেছিল মর্ত্যলোকে। এরই ধারাহিকতায় হিন্দুধর্মাবলম্বীরা প্রতি বছর শারদীয় উৎসব হিসেবে দুর্গাপূজা উদযাপন করে আসছে। আগামী ১১ অক্টোবর সোমবার ষষ্ঠী পূজার মধ্যদিয়ে শুরু হবে শারদীয় দুর্গাপূজা।

[৩] এ উপলক্ষে ফরিদপুর বোয়ালমারী ও আলফাডাঙ্গা প্রতিটি মন্দিরে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন প্রতিমা শিল্পীরা। উপজেলা উদযাপন কমিটির পক্ষ থেকে বিভিন্ন পূজা কমিটিগুলোকে দেওয়া হয়েছে বিভিন্ন দিক-নির্দেশনা। পূজার সময় যতই ঘনিয়ে আসছে প্রতিমা তৈরির কাজও ততই দ্রুতগতিতে করছেন শিল্পীরা।

[৪] বোয়ালমারী ও আলফাডাঙ্গা উপজেলা বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে দেখা গেছে, কোথাও খড় দিয়ে প্রতিমা তৈরির কাজ শেষ করেছেন আবার কোথাও শিল্পীর সুনিপুণ হাতের ছোঁয়ায় কৃত্রিম জীবন পাচ্ছেন মা দুর্গা, সরস্বতী, কার্তিক, গণেশ, অসুর ও শিব মূর্তি। কোনো কোনো মূর্তিতে পরানো হয়েছে শাড়ি, হাতের বালাসহ অন্যান্য গয়না।

[৫] সনাতন ধর্মাবলম্বলীদের বড় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে ফরিদপুর জেলার প্রতিটি মন্দিরে প্রতিমা শিল্পীদের দম ফেলার সময় নেই। ইতোমধ্যেই প্রতিমার মাটির কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। এরপর রঙ ও সাজসজ্জার কাজ বাকি ।

[৬] এসব প্রতিমা শিল্পীরা বিভিন্ন মন্দিরের ভিতরে প্রতিমা তৈরি করছেন। বুধবারে বোয়ালমারীর উপজেলার বিভিন্ন মন্দির ঘুরে দেখা যায়, বোয়ালমারী বাজার রক্ষা চণ্ডী, কামার গ্রামের আখড়া, ময়না বারোয়ারী মন্দির, আন্ধারকোঠা বারোয়ারী মন্দির,সাতৈর মন্দিরে গিয়ে দেখা গেছে, প্রতিমা তৈরির কাজে ব্যস্ত প্রতিমা শিল্পীরা।

[৭] বোয়ালমারী উপজেলার ময়না বারোয়ারী মন্দিরে প্রতিমা শিল্পী প্রদীপ পাল বলেন, দীর্ঘ ১২ বছর ধরে বিভিন্ন ধরনের প্রতিমা তৈরি করছি। গত বছর থেকে এবছর একটু কাজের চাপ বেশি। তবে করোনাকালীন চাহিদার তুলায় মজুরি কম পাচ্ছেন তারা। সেই সঙ্গে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির এ বাজারে পরিশ্রমের পর প্রতিমা তৈরি করে যে মজুরি পান তা দিয়ে জীবন যাপন করা কষ্টকর হয়ে পড়ছে। অনেকেই এ পেশা ছেড়ে চলে গেলেও তারপরেও বাপ দাদার আদি পেশা টিকিয়ে রাখছেন তারা। তিনি আরও বলেন, এ বছরেও ৪টি মন্দিরে প্রতিমা তৈরি করছেন তিনি। প্রতিটি দুর্গাদেবীর সঙ্গে রয়েছে অসুর, সিংহ, মহিষ, গনেশ, সরস্বতী, কার্তিক, লক্ষী ও মহাদেব প্রতিমা।

[৮] বোয়ালমারী জুয়েলারি সমিতির সাধারণ সম্পাদক মদন দাস বলেন, প্রতি বছর ধর্মীয় সম্প্রতি বজায় রেখে বোয়ালমারীতে দূর্গা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এ উৎসবকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যেই বোয়ালমারী রক্ষা চণ্ডী মন্দিরে এখন প্রতিমা স্থাপনের কাজ করছে।

[৯] বোয়ালমারী উপজেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি শ্যামল কুমার সাহা বলেন, গত বছর উপজেলায় ১১৩টি পূজা মন্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর ১১৪ টি পূজামন্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। সব পূজামন্ডপে শান্তিপূর্ণভাবে পূজা অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা করছি।

[১০] আলফাডাঙ্গা বাজার দুর্গা মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ কুমার কুন্ডু বলেন, আলফাডাঙ্গায় এ বছর ৪৭ টি পূজামন্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে শান্তি শৃংঙ্খলা বজায় রেখে পূজা উদযাপন করবে। সম্পাদনা: সঞ্চয় বিশ্বাস

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত