প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] নবনিযুক্ত আনসার সদস্যদের মৌলিক প্রশিক্ষণ ও এমএইচএস কোর্স সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত

সুজন কৈরী : [২] বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর নবনিযুক্ত ৩৭তম বিসিএস (আনসার) কর্মকর্তাদের মৌলিক প্রশিক্ষণ ও এমএইচএস কোর্স সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার গাজীপুরের সফিপুরে আনসার-ভিডিপি একাডেমিতে অনুষ্ঠিত হয়।

[৩] অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মিজানুর রহমান শামীম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাহিনীর অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খোন্দকার ফরিদ হাসান।

[৪] আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর গণসংযোগ কর্মকর্তা (অতি. দায়িত্ব) মেহেনাজ তাবাস্সুম রেবিন স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাহিনীতে নবনিয়োগপ্রাপ্ত মোট ৭জন চৌকস বিসিএস (আনসার) কর্মকর্তা দীর্ঘ ১৫মাস কঠোর মৌলিক প্রশিক্ষণ এবং এমএইচএস কোর্স সম্পন্ন শেষে সমাপনী কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণ করেন। রোববার সকালে প্যারেড মাঠে আগমনের পর প্রধান অতিথিকে স্বাগত জানান বাহিনীর অতিরিক্ত মহাপরিচালকসহ উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা। অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধান অতিথি একটি সুসজ্জিত খোলা জীপে প্যারেড পরিদর্শন করেন। এ সময় প্রধান অতিথির সাথে কমান্ড্যান্ট ও প্যারেড কমান্ডার উপস্থিত ছিলেন।

[৫] পরে প্রশিক্ষণার্থী কর্মকর্তারা ৭ সারিতে মার্চ পাস্ট করে প্রধান অতিথিকে অভিবাদন প্রদান করেন। এরপর প্রধান অতিথি প্রশিক্ষণার্থী কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে তার বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মূল চালিকা শক্তি হচ্ছে ‘প্রশিক্ষণ’। এই মৌলিক প্রশিক্ষণ গ্রহণের মাধ্যমে নবনিয়োগপ্রাপ্ত অফিসারগণ নিজেদের শারীরিকভাবে দক্ষ ও চৌকস কর্মকর্তা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। তিনি প্রশিক্ষণলদ্ধ জ্ঞান কাজে লাগিয়ে বাহিনীর উন্নয়নের পাশাপাশি দেশ ও জাতির সার্বিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখার আহবান জানান। বাহিনীর ভাবমূর্তি ও মর্যাদা অক্ষুন্ন রেখে নিজেদের উপর অর্পিত দায়িত্ব ও কর্তব্য সুষ্ঠু ও সঠিকভাবে পালন করার জন্য সকলের প্রতি নির্দেশ প্রদান করেন। জননিরাপত্তা বিধানের মহান দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীকে এক নির্ভরযোগ্য সুশৃঙ্খল বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে তিনি সকল প্রশিক্ষণার্থী কর্মকর্তাদের উপদেশ দেন।

[৬] মৌলিক প্রশিক্ষণ ও এমএইচএস কোর্স গ্রহণ শেষে আয়োজিত এ মনোমুগ্ধকর ও সুন্দর প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ উপস্থাপনা এবং উপহার দেওয়ায় প্রধান অতিথি সকল প্রশিক্ষণার্থী কর্মকর্তাকে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

[৭] প্রশিক্ষণ সমাপনীতে সেরা চৌকস, ড্রিল ও ফায়ারার হিসেবে কৃতিত্ব অর্জনকারী তিনজন প্রশিক্ষণার্থী কর্মকর্তাকেও তিনি অভিনন্দন জ্ঞাপন করেন। সু-শৃঙ্খল এ প্রশিক্ষণ আয়োজন ও পরিচালনার জন্য কমান্ড্যান্ট, আনসার ও ভিডিপি একাডেমিসহ প্রশিক্ষণের সাথে সম্পৃক্ত সংশ্লিষ্ট সকল কর্মকর্তা ও প্রশিক্ষকবৃন্দকে তিনি আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

[৮] বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বাহিনীর মহাপরিচালক তিনজন কৃতি প্রশিক্ষণার্থী কর্মকর্তার মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। সহকারি পরিচালক নাজমুছ সালেহীন নূর শ্রেষ্ঠ ড্রিল, সহকারি পরিচালক মো. সুজন মিয়া শ্রেষ্ঠ ফায়ারার এবং সহকারি পরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম চৌকস প্রশিক্ষণার্থী কর্মকর্তা হিসেবে এ পুরস্কার অর্জন করেন। পরে সংঘবদ্ধ মার্চ পাস্টের মাধ্যমে সমাপনী কুচকাওয়াজের সমাপ্তি ঘটে।

[৯] মৌলিক প্রশিক্ষণ ও এমএইচএস কোর্সের কোর্স ওআইসি’র দায়িত্ব পালন করেন মো. মাহবুবুর রহমান, পরিচালক (অস্ত্র চালনা প্রশিক্ষণ)। সমাপনী কুচকাওয়াজে প্যারেড কমান্ডার হিসেবে উপ-পরিচালক মো. জাহিদ হোসেন, প্যারেড অ্যাডজুট্যান্ট হিসেবে সহকারি পরিচালক মো. সহিদুল ইসলাম এবং বিএইচএম হিসেবে মো. মজিবর রহমান দায়িত্ব পালন করেন।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত