প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মাঠের রাজনীতিতে নামছে আওয়ামী লীগ

সমীরণ রায়: [২] আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় গত ২০১৯ সালের ২০-২১ ডিসেম্বর। এর পরপরই ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা সংক্রমণের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। সঙ্গত কারণেই স্থবির হয়ে পড়ে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের রাজনীতি। সম্প্রতি সংক্রমণ কিছুটা নিয়ন্ত্রণের সঙ্গে রাজনীতিতেও সরব হয়েছে দলটি। ইতোমধ্যে গত ৯ সেপ্টেম্বর দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের দীর্ঘ এক বছর পর বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এ বৈঠকে বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছেন দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা। ওই বৈঠকে আগামী দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনসহ তৃণমূলের সম্মেলন দ্রুত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে কেন্দ্রীয় নেতা, স্থানীয় সংসদ সদস্যসহ সবাইকে রাজনীতিতে মনোযোগী হওয়ার নির্দেশনাসহ, নেতাদের সাবধান করেছেন দলের সভাপতি শেখ হাসিনা। তাদের বলেন, রাজনীতিতে মনোযোগী হন। আগে দেশ, দল ও মানুষকে নিয়ে ভাবুন। পরে নিজের কথা ভাববেন। এরই প্রেক্ষিতে দেশব্যপি রাজনীতিতে চাঙ্গাভাব দেখা দিয়েছে।

[৩] গত মঙ্গলবার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে বিভাগীয় টিমের সঙ্গে জেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের বৈঠক হয়। এতে দুটি জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হয়। আগামী ২০ নভেম্বর পাবনা ও ২১ নভেম্বর নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এছাড়া আগামী ২৯ অক্টোর ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

[৪] আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা বলেন, দলের ২১তম জাতীয় সম্মেলনের পরপরই দেখা দেয় করোনা সংক্রমণ। ফলে দলের নেতাকর্মীরা রাজনীতিতে সরব থাকলেও স্থবিরতা দেখা দিয় সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে। তবে গত ৯ সেপ্টম্বর কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে দলের সভাপতির নির্দেশনার পর আবারও মাঠের রাজনীতি সরব হয়েছেন নেতারা। এখন থেকে ৮বিভাগীয় সাংগঠনিক টিম দেশব্যপি বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়ে মাঠে থাকবে। এছাড়া তৃণমূলের যেসব জেলা-উপজেলায় সম্মেলন হয়নি, সেগুলো দ্রুততার সঙ্গে শেষ করা হবে।

[৫] আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুর রহমান বলেন, প্রতিটি উপজেলা সাংগঠনিক ইউনিট গঠনের নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে দল। গত ১৪ সেপ্টম্বরের বৈঠকে বিভাগীয় টিমের সঙ্গে জেলা আওয়ামী লীগের বৈঠকে পাবনার নতুন দুই উপজেলা আতাইকুলা ও আমিন বাজার সাংগঠনিক ইউনিট ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া একের পর এক দেশব্যপি সাংগঠনিক সফরসহ তৃণমূলের বাকি সম্মেলনগুলো দ্রুত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

[৬] আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন বলেন, আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার নির্দেশে তৃণমূলকে সংগঠিত করতে কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ শাখাগুলোতে সম্মেলন করার প্রস্তুতি নিচ্ছি আমরা। শিগগিরই বাকি জেলাগুলোর বিষয়ে কাজ শুরু করবো।

সর্বাধিক পঠিত